নেয়ামত ভূঁইয়া’র অণুকাব্য

ড. নেয়ামত উল্যা ভূঁইয়া
| আপডেট : ৩১ জুলাই ২০২১, ১৮:৪৬ | প্রকাশিত : ৩১ জুলাই ২০২১, ১৮:১৯

১.ভরসা

মানুষের উপর ভরসা করেছি তোমার ভরসা ভুলে,

তাইতো আমার জাহাজ ভিড়েনি কূলে।

আঁধার যখন ঘিরেছে আমার চারিধার;

তুমি কৃপা করে আমাকে করেছো

রসাতল থেকে উদ্ধার।

২. বন্ধুর খোঁজে

যতো দুর্গম বন্ধুর পথ পাড়ি দিয়ে তুমি বন্ধু খোঁজো,

জগতে আসল বন্ধু পাবে না; সে কথাটা আগে বোঝো।

৩. আস্ফালনের দণ্ড

আমার যা ছিলো প্রয়োজন;

তারো বেশি দিলে তুমি যশ জ্ঞাণ বিদ্যা বুদ্ধি ধন;

তারপরও করি আমি তারো চেয়ে বেশি আস্ফালন।

পরে আমাকে করলে পুরো নির্ধন,

দন্ড পেয়েছে আমার সীমা লঙ্ঘন।

৪. সংকট-কন্টক

ক্ষতি নেই যদি জীবনের পথে পথে

বিছিয়ে দাও সংকট-কন্টক,

তবে দিও তুমি সেই মনোবল,

খুলতে পারি যোনো সংকট-জট।

৫. দু:খ বিলাস

সব কথা কথা নয়;

কিছু কথা কথার ফাঁকে শুধুই অর্থহীন কথার কথা,

সব দু:খ দু:খ নয়;

কিছু দু:খ সুখিদের ভুতে কিলানো দু:খ বিলাসিতা।

৬. সুদিনের বন্ধু

বন্ধুর খোঁজে যতো বন্ধুর পথই তুমি দেবে পাড়ি,

বন্ধুরা সব গেছে দূর দেশে চাঁদ মামাদের বাড়ি,

টিকির নাগাল পাবে না তাদের, দেবে না এখন ধরা,

তোমার সুদিন আসলেই তোমার দুয়ারে নাড়বে কড়া।

৭. নীরব ভাষার ফুল

কথার পিঠে কথা জুড়ে দিয়ে কথাই কেবল বাড়ালে,

কথার এমন জঙ্গলে শেষে আসল কথাই হারালে।

কথার হাজার ফুল সাজিয়ে কি প্রেমের মালিকা গাঁথা যায়?

নীরব ভাষার ফুল শয্যাতেই প্রেমের আসন পাতা যায়।

৮. ঐশি আলো

এমন আলো ছড়িয়ে আমার ঘুচিয়ে দেবে মনের কালো,

যেই আলোতে তুচ্ছ হবে মেঘমুক্ত সূর্যের আলো।

৯. জিতের খাতা

পদে পদে হারলে এতো জিতবো কখন, হে বিধাতা?

হারের খাতা ছুঁড়ে ফেলে খোলো আমার জিতের খাতা।

আমার জিতের মাঝেই জাগে তোমার প্রাণে আনন্দ গান,

বারে বারে হারলে আমি তোমার কৃপার কী থাকে মান?

সংবাদটি শেয়ার করুন

সাহিত্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :