অপছন্দের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ থেকে বের হওয়ার কৌশল

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০৩ আগস্ট ২০২১, ০৯:৫০ | প্রকাশিত : ০৩ আগস্ট ২০২১, ০৯:৪০

যোগাযোগের বিবর্তনের ধারাবাহিকতায় বর্তমানে স্মার্টফোন সবার হাতেই। স্মার্টফোন ব্যবহারে একে অপরের সাথে যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতে বেশ বৈচিত্র এসেছে। মোবাইলের ব্যবহার আগের মত শুধু কল করা বা মেসেজ আদান প্রদানেই সীমাবদ্ধ নেই। অনেকগুলো সফটওয়্যার এখন স্মার্টফোনে ব্যবহৃত হয়। হোয়াটসঅ্যাপ তাদের মধ্যে অন্যতম। পরিবার, বন্ধু, সহকর্মীদের সঙ্গে যুক্ত থাকার এক চমৎকার উপায় হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ । জনপ্রিয় মেসেজিং প্ল্যাটফর্মের এই গ্রুপ অনেকেই পছন্দ করেন।

করোনা আবহে ‘ওয়ার্ক ফ্রম হোম’-এর যুগে হোয়াটসঅ্যাপের গ্রুপের মাধ্যমেই চলছে কাজকর্ম। কিন্তু এরই পাশাপাশি অনেক সময়ই বিরক্তের কারণ হয়ে ওঠে অবাঞ্ছিত গ্রুপে যুক্ত হয়ে পড়ার অভিজ্ঞতা। অনুমতি না নিয়েই অনেক সময় কোনও না কোনও গ্রুপে যুক্ত করে দেওয়া হয়। যা রীতিমতো বিরক্তিকর। কোনও পরিষেবার প্রোমোশন কিংবা বাজারচলতি জিনিসপত্র, জামাকাপড় বিক্রি করার নানা ফিকিরে এই সব গ্রুপ তৈরি করা হয়।

আপনি চাইলেই গ্রুপটি ‘লিভ’ করে বেরিয়ে আসতে পারেন। কিন্তু সেজন্য ব্যস্ততার মধ্যে সময় বের করা কিংবা পরে ফের আবার কোনও গ্রুপে যুক্ত হয়ে পড়ার আশঙ্কা থেকে মুক্তির উপায় কি নেই? আছে। চাইলেই আপনি এমন ফিল্টারের বন্দোবস্ত করতে পারেন যার ফলে আপনার অনুমতি না নিয়ে কেউ কোনও গ্রুপে আপনাকে যোগ করতে পারবে না।

প্রথমে হোয়াটসঅ্যাপের ডানদিকে কোণে যে তিনটি বিন্দু রয়েছে সেখানে ক্লিক করুন। সেখান থেকে ‘সেটিংস’-এ যান। তারপর ‘অ্যাকাউন্টস’ সিলেক্ট করুন। ‘অ্যাকাউন্টস’-এর ভিতরে রয়েছে ‘প্রাইভেসি’। তার ভিতরেই পাবেন ‘গ্রুপস’।

সাধারণ ভাবেই ‘গ্রুপস’-এর ভিতরে ‘এভরিওয়ান’ সিলেক্ট হয়ে থাকে। অর্থাৎ কেউ চাইলেই আপনার ফোন নম্বর পেলেই যে কোনও গ্রুপে যুক্ত করে দিতে পারবে আপনাকে। আপনি এবার সেটিকে ‘মাই কনট্যাক্ট’ করে দিলে আপনার ফোনে সেভ করে রাখা কনট্যাক্ট তালিকার লোকজনই আপনাকে কোনও গ্রুপে ঢোকাতে পারবে। আর যদি চান, একেবারেই নির্দিষ্ট কিছু লোককেই সেই সুযোগ দিতে তাহলে ‘মাই কনট্যাক্টস এক্সেপ্ট’ অপসনটি আপনার জন্য। সেখানে গিয়ে প্রয়োজনীয় এডিট করে দিলেই ব্যাস। আর কোনও অবাঞ্চিত গ্রুপে আপনাকে কেউ যুক্ত করতে পারবে না।

(ঢাকাটাইমস/৩আগস্ট/আরজেড/এজেড)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :