শরীরের মেদ ঝরাতে খাদ্যাভ্যাসে পরিবর্তন আনুন

ফিচার ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০৫ আগস্ট ২০২১, ১১:১২ | প্রকাশিত : ০৫ আগস্ট ২০২১, ০৯:২৯

শরীরের অতিরিক্ত মেদ সুস্থ ও স্বাভাবিক জীবনযাত্রায় ক্ষতিকর। শরীরের অতিরিক্ত মেদ ডেকে আনে বিভিন্ন রোগ। হরমোনের সমস্যা, উচ্চ রক্তচাপের মতো বিভিন্ন অসুখের অন্যতম কারণ হলো মেদ। তাছাড়া পেটে মেদ জমলে সবাই অস্বস্তি বোধ করেন।

পেটের মেদ ঝরানোর জন্য নিয়মিত ব্যায়ামের পাশাপাশি খাদ্যাভাসে কিছু পরিবর্তন করা দরকার। খাদ্যাভ্যাস আর নিয়মিত শরীর চর্চা একসঙ্গে মিলে শরীরে জমে থাকা বাড়তি ক্যালরি ধ্বংস করবে। যদি কেউ সত্যিকার অর্থে পেটের মেদ ঝরাতে চান তাহলে অবশ্যই উচ্চ ক্যালরিসম্পন্ন স্বাদযুক্ত খাবার খাওয়া পরিত্যাগ করতে হবে।

প্রতিদিন ব্রেকফাস্ট করুন। অনেকেই মনে করেন ব্রেকফাস্ট না করে ওজন কমানো যাবে। তবে এটা ভুল ধারণা। এতে সমস্যা বাড়বে।

লাঞ্চ করুন নিয়ম মেনে। ডায়েটে রাখুন পর্যাপ্ত প্রোটিন, ফাইবার, ফ্যাট। কোনওকিছুই বাদ দেবেন না। পাশাপাশি ছোট প্লেটে খাবার নিন এতে অতিরিক্ত খাওয়া এড়ানো সহজ হবে।

ফলমূলে খুব কম পরিমাণে ক্যালরি থাকে। এগুলো ভিটামিন আর খনিজে ভরপুর।

বিশেষ করে সাইট্রাস জাতীয় ফল যেমন-কমলা, লেবু ,জাম্বুরা এগুলো শরীরের মেদ ঝরানোর জন্য দারুন কার্যকরী। এসব ফলে বিপাক ও অম্ল উপস্থিত থাকায় যেকোন ফলের তুলনায় মেদ ঝরাতে এগুলো দ্রুত কাজ করে। এছাড়া আপেল, তরমুজ, আঙ্গুর এবং স্ট্রবেরী ফল পেটের মেদ ঝরানোর জন্য উপকারী।

ওজন কমানোর জন্য প্রতিদিন যদি ৩-৪ বার করে গ্রিন টি খেতে পারেন, তাহলে ফল পেতে পারেন কয়েক দিনের মধ্যেই। গ্রিন টি-এর মধ্যে যদি গোলমরিচ, লবঙ্গ, এলাচ এবং আদা মিশিয়ে খেতে পারেন, ওজন ঝরানোর ক্ষেত্রে উপকার পাবেন।

নিজেকে সক্রিয় রাখুন। রোজ অন্তত ৩০ মিনিট হলেও দৌড়ান। হাটাহাটি করুন। এতে ওজন কমবে সহজেই।

ওজন কমাতে প্রতিদিন অন্তত ৩ লিটার পানি খাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।

হালকা গরম পানিতে মধু মিশিয়ে খান প্রতিদিন । ফল পাবেন। তবে যারা ওজন ঝরাতে চান দ্রুত, তারা কিন্তু খাওয়ার পর পরই পানি খাবেন না। এক গ্লাস পানিতে এক চামচ মধু, সঙ্গে লেবুর রস এবং গোলমরিচ মিশিয়ে খেয়ে নিন। প্রতিদিন সকালে যদি ওই মিশ্রণ খেতে পারেন, আপনার ওজন কিন্তু বাড়বে না।

প্রত্যেকদিন গোসল করবেন। ঘুমাতে যাওয়ার আগেও গোসল করতে পারেন। এতে সারাদিনের ক্লান্তি দূর হবে। ভাল ঘুম হবে। যা ওজন কমাতে সাহায্য করবে।

মেদ কমাতে প্রত্যেকদিন আট ঘণ্টা ঘুম জরুরি। ঘুমানোর ১ ঘণ্টা আগে থেকে স্মার্ট ফোনটি বন্ধ করে দিন। রাতে হালকা ডিনার করুন। এতে ঘুম ভালো হবে।

ঘুমাতে যাওয়ার আগে প্রতিদিন এক চামচ করে অ্যাপেল সিডার ভিনিগার যদি আপনার পেটে পড়ে, তাহলে তা ওজন কমাতে সাহায্য করবে। শুধু তাই নয়, এতে যেমন আপনার মেদ ঝরবে তেমনি ঘুমও ভাল হবে।

রোগা হতে জাঙ্ক ফুড বর্জন করুন আজই। রাস্তার খাবার, রেডি টু ইট ফুড একেবারেই নৈব নৈব চ।

প্রতিদিন ডায়েটে প্রচুপ পরিমাণে সবুজ শাকসবজি এবং ফল রাখুন।

অতিরিক্ত মদ্যাপান মেদ বৃদ্ধির কারণ। তাই ওজন কমানোর সিদ্ধান্ত নিলে মদ অবশ্যই বাদ দিন।

মেদ ঝরাতে প্রতিদিন পর্যাপ্ত পানি পান করতে হবে, চিনিমিশ্রিত খাবার এড়িয়ে চলতে হবে।

জিরা পানি আপনার শরীর থেকে বাড়তি মেদ ঝরাবে। ধৈর্য ধরে ১৫টি দিন দেখুন। এর মধ্যে প্রতিদিন নিয়ম করে এক চামচ গোটা জিরা খেয়ে ফেলুন। একদিনও বাদ দেবেন না। তার আগে আর একটি কাজ আপনাকে করতে হবে। নিজের ওজন নিয়ে, লিখে রাখুন। ১৫দিন পর ফের ওজন নিন। নিজেই অবাক হয়ে যাবেন। কলা দিয়ে জিরা খেলেও ওজন ঝরবে। সাম্প্রতিক এক গবেষণায় দেখা গিয়েছে, গোটা জিরা খুব দ্রুত শরীর থেকে ওজন ঝরাতে সক্ষম।

একটা প্লাসে বড় চামচের দু-চামচ গোটা জিরা সারারাত ভিজিয়ে রাখুন। সকালে সেই পানি গরম করে, জিরা না ছেঁকে চায়ের মতো খান। মুখে গোট জিরা পড়লে, ফেলবেন না। চায়ের মতো কয়েক দিন পান করুন, দেখবেন ওজন কমছে।

পাতিলেবু ও রসুন ওজন ঝরাতে খুব ভালো দাওয়াই। গাজর ও অন্যান্য সবজি সিদ্ধ করে নিয়ে, রসুন কুচি ও লেবুর রস ঢেলে দিন। তাতে কিছুটা জিরার গুঁড়া মেশান। রোজ রাতে খেয়ে, ম্যাজিক পরিবর্তন দেখুন। ১৫ দিনে পরেই বুঝতে পারবেন আপনার ওজন কমেছে।

(ঢাকাটাইমস/৫আগস্ট/আরজেড/এজেড)

সংবাদটি শেয়ার করুন

ফিচার বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :