‘প্রতারক সব ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা’

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৫:১০

ইভ্যালি-ইঅরেঞ্জের মতো যেসব ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান পণ্য বিক্রির নামে গ্রাহকদের সঙ্গে প্রতারণা করছে তাদের বিরুদ্ধেও কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) অতিরিক্ত কমিশনার (ডিবি) এ কে এম হাফিজ আক্তার।

শনিবার দুপুরে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি।

হাফিজ আক্তার বলেন, ‘ইভ্যালি ও ই-অরেঞ্জসহ এমন আরও প্রতিষ্ঠান রয়েছে, যারা প্রতারণা করেছে। বাজারমূল্যের চেয়ে অনেক কম দামে পণ্য বিক্রির অফার দিয়ে যারা গ্রাহকদের পণ্য দেয় না, তারা মূলত প্রতারণা করছে। এসব বিষয়ে তদন্ত চলছে, তদন্ত শেষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ ধরনের প্রতারকদের বেশি বেশি ধরা হলে ধীরে ধীরে প্রতারণা কমে আসবে। আমরা চাই সুন্দর একটি ই-কমার্স প্লাটফর্ম ফিরে আসুক। দেশে ই-কমার্স প্রসারিত হোক।’

প্রতারণা করা প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে পণ্য কিনে যারা প্রতারিত হয়েছেন তাদের টাকা ফেরত পাওয়ার কোনো সম্ভাবনা আছে কি না এমন এক প্রশ্নের জবাবে গোয়েন্দা পুলিশের এই কর্মকর্তা বলেন, ‘আমাদের কাজ প্রতারণা ঘটলে তাদের আইনের আওতায় আনা। কেউ প্রতারিত হলে বা টাকা দিলে সেগুলো ফেরত পাবে কি না এটি বিচার বিভাগের বা আদালতের বিষয়। এখানে আমাদের কোনো হাত নেই। ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তি আদালতে প্রমাণসহ উপস্থাপন করলে সে বিষয়ে আদালত সিদ্ধান্ত দিবেন।

গত বুধবার রাতে আরিফ বাকের নামে এক গ্রাহক ইভ্যালির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) রাসেল এবং তার স্ত্রী প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিনের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে গুলশান থানায় মামলা করেন। মামলার পরদিন বৃহস্পতিবার বিকালে দুজনকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব।

গ্রেপ্তারের পর শুক্রবার আসামিদের আদালতে হাজির করে প্রত্যেকের ১০ দিন করে রিমান্ডের আবেদন করা হয়। শুনানি শেষে দুজনের তিন দিন করে রিমান্ডের আদেশ দেন আদালত।

ঢাকাটাইমস/১৮সেপ্টেম্বর/এআর/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

জাতীয় এর সর্বশেষ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :