পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী হচ্ছেন সিধু!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
 | প্রকাশিত : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:২৮

সম্প্রতি ভারতের পাঞ্জাব প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন ক্যাপ্টেন অমরেন্দ্র সিংহ। তার পদত্যাগের পর অবধারিতভাবে যে প্রশ্নটি উঠে এসেছে তা হলো, পাঞ্জাবের পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রী কে হবেন। কংগ্রেস এখনো ঘোষণা না দিলেও

এই পদের সম্ভাব্য তালিকায় সবার ওপরে রয়েছেন সাবেক ক্রিকেটার প্রদেশ কংগ্রেস কমিটির প্রধান নভজ্যোৎ সিংহ সিধু। এছাড়াও এই তালিকায় রয়েছেন আরও কয়েকজন।

মাস কয়েক আগেই সিধুকে পাঞ্জাব প্রদেশ কংগ্রেস কমিটির প্রধান হিসেবে মনোনীত করেছেন কংগ্রেস শীর্ষ নেতৃত্ব। তার আগে থেকেই অবশ্য পাঞ্জাবে কংগ্রেসের দু’টি শিবির তৈরি হয়ে গিয়েছিল। সাবেক মুখ্যমন্ত্রী অমরেন্দ্রর বিরোধী শিবিরের মুখ হিসেবে উঠে এসেছিলেন সিধু। অমরেন্দ্রর ইস্তফার পর পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী যে সিধু শিবির থেকে বেছে নেওয়া হবে সে ব্যাপারে অনেকটা নিশ্চিত রাজনৈতিক মহল। খবর আনন্দবাজারের

অমরেন্দ্রর উত্তরসূরি হিসেবে সিধুর সঙ্গে পাল্লা দিচ্ছেন পাঞ্জাব কংগ্রেসের সাবেক প্রধান সুনীল জাখর। বিশেষজ্ঞদের মতে, জাখর যদি মুখ্যমন্ত্রী হন তবে হিন্দু মুখ্যমন্ত্রী আর জাঠ শিখ প্রদেশ কংগ্রেস প্রধানের এক বিরল মেলবন্ধন পাবে পাঞ্জাব। যা আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে পাঞ্জাবের পক্ষে কাজ করতে পারে।

পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে সিধুর নিয়োগের বিষয়টিও একেবারে উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। কারণ প্রথমত জাখর পঞ্জাব বিধানসভার বিধায়ক নন। তাছাড়া গত এক মাসের রাজনৈতিক পরিস্থিতি বলছে, অমরেন্দ্রর বিরুদ্ধে যুদ্ধে সিধুকেই সমর্থন করেছে কংগ্রেস শীর্ষ নেতৃত্ব।

পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী পদের দাবিদার হিসেবে অবশ্য আরও বেশ কয়েকটি নাম উঠে এসেছে। এর মধ্যে প্রাক্তন প্রদেশ কংগ্রেস প্রধান প্রকাশ বাজওয়া, কংগ্রেসের রাজ্যসভা সাংসদ অম্বিকা সোনি, রাজ্যের মন্ত্রী সুখজিন্দর রান্ধওয়া এবং ত্রিপ্ত রাজিন্দর বালওয়াও রয়েছেন। এদের অধিকাংশই সিধু শিবিরের ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত।

ঢাকাটাইমস/১৯সেপ্টেম্বর/একে

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :