বিএসএমএমইউর করোনা সেন্টারে চিকিৎসাসেবা নিয়েছেন ১৩ হাজার রোগী

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:১৬

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) কেবিন ব্লকে করোনা সেন্টারে সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) পর্যন্ত ১৩ হাজার ২২৫ জন রোগী চিকিৎসাসেবা নিয়েছেন।

সোমবার সন্ধ্যায় বিএসএমএমইউ কর্তৃপক্ষ গণমাধ্যমকর্মীদের জানান, আজ পর্যন্ত ভর্তি হয়েছেন ছয় হাজার ৭৯০ জন। সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরেছেন পাঁচ হাজার ৭২৯ জন। বর্তমানে করোনা সেন্টারে ভর্তি আছেন ৬৫ জন। আইসিইউতে ভর্তি আছেন ১২ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ছয়জন।

এদিকে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব কোভিড ফিল্ড হাসপাতালে এ পর্যন্ত ৬৪৮ জন রোগী চিকিৎসাসেবা নিয়েছেন এবং আজ সোমবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ভর্তি হয়েছেন ৩৪৪ জন রোগী। সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরেছেন ২৬৪ জন। বর্তমানে ভর্তি আছেন ৪২ জন রোগী।

এছাড়া বেতার ভবনের পিসিআর ল্যাবে গতকাল রবিবার পর্যন্ত এক লাখ ৯০ হাজার ১৩৪ জনের পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। বেতার ভবনের ফিভার ক্লিনিকে এক লাখ ১৮ হাজার ২৫৩ জন রোগী সেবা নিয়েছেন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ডক্টরস ডরমিটরিতে গতকাল রবিবার এক হাজার চারজনসহ সিনোফার্মের ভেরোসেলের প্রথম ডোজের টিকা নিয়েছেন ১৯ হাজার ৩৭৫ জন। গত ৭ সেপ্টেম্বর দুজনসহ ফাইজারের ১০ হাজার ৬৩৬ জন প্রথম ডোজের টিকা নিয়েছেন। গত ১৫ সেপ্টেম্বর তিনজনসহ অ্যাস্ট্রাজেনেকার ৪৯ হাজার ৪৯১ জন এবং গত ২৯ আগস্ট পর্যন্ত মোট ৩৫ হাজার ২৭৫ জন প্রথম ডোজের মডার্নার টিকা নিয়েছেন।

গতকাল রবিবার পর্যন্ত অ্যাস্ট্রাজেনেকা, ফাইজার, মডার্না ও সিনোফার্মসহ মোট এক লাখ ১৪ হাজার ৭৭৭ জন প্রথম ডোজের টিকা নিয়েছেন। ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত দ্বিতীয় ডোজের অক্সফোর্ড অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা নিয়েছেন ৪৮ হাজার ৮৭৬ জন। গত ৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ফাইজারের দ্বিতীয় ডোজের টিকা নিয়েছেন আট হাজার ৩৭৯ জন। ১৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত মডার্নার দ্বিতীয় ডোজের টিকা নিয়েছেন ৩১ হাজার ১০৭ জন। রবিবার পর্যন্ত সিনোফার্মের ভেরোসেলের দ্বিতীয় ডোজের টিকা নিয়েছেন তিন হাজার ৬৪৬ জন। মোট ৯২ হাজার আটজনকে দ্বিতীয় ডোজের টিকা দেওয়া হয়েছে।

এদিকে বিএসএমএমইউর উপাচার্য মো. শারফুদ্দিন আহমেদ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসাসেবায় নিয়োজিত সম্মুখসারির মহান যোদ্ধা চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্য কর্মীদের সাহস ও মনোবল বৃদ্ধির জন্য নিয়মিত ওরিয়েন্টশন অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা দিয়ে যাচ্ছেন।

(ঢাকাটাইমস/২০সেপ্টেম্বর/এএ/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

স্বাস্থ্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :