ঐক্যফ্রন্টের অস্তিত্ব নেই, পুনর্জাগরণের সম্ভাবনা আছে: ড. কামাল

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৩ নভেম্বর ২০২১, ২১:২৬ | প্রকাশিত : ১৩ নভেম্বর ২০২১, ২০:৫২

গত জাতীয় নির্বাচনের আগে বিএনপিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দল নিয়ে গঠিত জোট ঐক্যফ্রন্টের এখন কোনো অস্তিত্ব নেই বলে জানিয়েছেন তখনকার জোটপ্রধান ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন। তবে তিনি বলেছেন, আগামী নির্বাচন সামনে রেখে ঐক্যফ্রন্টের পুনর্জাগরণ হতে পারে।

শনিবার রাজধানীর বিজয়নগরের চু ওয়াং রেস্টুরেন্টে ডিজেলের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদ ও নির্দলীয় সরকারের অধীনে আগামী নির্বাচনের দাবিতে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন বর্ষীয়ান নেতা।

নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবি করে ড. কামাল হোসেন বলেন, ‘নির্দলীয় সরকারের অধীনে আগামী সংসদ নির্বাচন আমরা দাবি করি, কেননা আমরা দেখেছি যে দলীয় নির্বাচন অবাধ ও নিরপেক্ষ হয় না। সে কারণে আমরা জোর দাবি জানাচ্ছি, আগামী নির্বাচন নির্দলীয় সরকারের অধীনে হওয়া উচিত।’

গত নির্বাচনের আগে গঠিত তাদের ঐক্যফ্রন্টের বিষয়ে ড. কামাল হোসেন বলেন, ‘এই মুহূর্তে এটার (ঐক্যফ্রন্ট) কোনো অস্তিত্ব নেই। তবে একটা সম্ভাবনা তো আছে। আমাদের পুনর্জাগরণের সম্ভাবনা আছে। নতুন করে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কিছু একটা করার অবশ্যই সম্ভাবনা আছে। এটা নিয়ে আমরা বসব, আলোচনা করব এবং সিদ্ধান্ত নেব।’

সংবাদ সম্মেলনে দুটি বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চান জানিয়ে গণফোরাম সভাপতি বলেন, ‘একটি হলো ডিজেলের দাম বাড়ানোর অজুহাতে যানবাহনে ভাড়া বাড়ানো হয়েছে। আমরা মনে করি যে, এটা অনুচিত হয়েছে। কারণ ডিজেলের দাম বাড়ার অজুহাতে সবকিছুর দাম বাড়ানো হয়েছে। এতে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস মানুষের ক্রয়ক্ষমতার বাইরে চলে যাচ্ছে। এটা উচিত হয়নি এবং এটার দাম কমানোর দরকার।’

নির্দলীয় সরকারের দাবির যৌক্তিকতার বিষয়ে জানতে চাইলে ড. কামাল বলেন, ‘আমরা আগেই দেখেছি যে, দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন নিরপেক্ষ হয় না। নিরপেক্ষ নির্বাচনের লক্ষ্যে আমরা বলছি যে, যে সরকার নির্বাচনের সময় থাকবে তাকে দল নিরপেক্ষ হতে হবে। তাহলে আশা করা যায় আমরা একটি নিরপেক্ষ নির্বাচন পেতে পারি। আমরা দাবি তুললে তারপর এটা আলোচনা মধ্যে আদায় করা যায়। প্রয়োজনে সংবিধান সংশোধন করা হবে। জনগণের দাবি উঠলে এটা হবে।’

২০১৮ সালে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ বিরোধী নির্বাচনি জোট জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। বিএনপি এ জোটের বড় দল হলেও জোটের প্রধান নেতা হিসেবে আলোচনায় চলে আসেন গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন।

আগামী ৪ ডিসেম্বর গণফোরামের কাউন্সিল অনুষ্ঠতি হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সেটি পিছিয়ে দেয়া হয়েছে জানিয়ে ড. কামাল হোসেন বলেন, ‘আমাদের দলের ৪ ডিসেম্বর যে সম্মেলন হওয়ার কথা ছিল সেটা জানুয়ারির শেষে হবে। আমরা সম্মেলন মূলতবি করছি।’

১৯৯১ সালে আওয়ামী লীগ থেকে বের হয়ে গণফোরাম প্রতিষ্ঠা করেছিলে ড. কামাল হোসেন। তবে সে সময় দেশের রাজনীতিতে আলোড়ন তুলেতে পারেননি তিনি। তবে গত জাতীয় নির্বাচনের পর এই জোট নেতা বিএনপিসহ অন্যান্য রাজনৈতিক দলের কাছে নিজের গুরুত্ব হারিয়ে বসেন।

(ঢাকাটাইমস/১৩নভেম্বর/কারই/ইএস/মোআ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :