এবার ছাত্রীকে ধাক্কা দিয়ে ফেলায় রাইদার ১৫ বাস আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১৭:০৫

এবার ঢাকা ইম্পেরিয়াল কলেজের এক ছাত্রীকে রাইদা পরিবহনের বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এর প্রতিবাদে প্রগতি সরণির রামপুরা বিটিভি ভবন এলাকায় শিক্ষার্থীরা রাইদা পরিবহনের ১৫টি বাস আটক করেছে।

সোমবার দুপুরে রামপুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ওসি রফিকুল ইসলাম জানান, আজ দুপুরে ইম্পেরিয়াল কলেজের এক ছাত্রী মুগদা থেকে করোনার টিকা নিয়ে রাইদা পরিবহনের একটি বাসে করে বাসায় ফিরছিলেন। রামপুরা পুলিশ বক্সের সামনে নামার সময় তাকে ওই বাসের হেলপার ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয় বলে অভিযোগ করেন তিনি। এ খবর প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষার্থীদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়লে তারা সংঘবদ্ধ হয়ে রামপুরা বিটিভি ভবনের সামনের রাস্তায় অবস্থান নেয় এবং রাইদা পরিবহনের ১৫টি বাস আটকে দেয়। খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করি।

তিনি আরও বলেন, যে বাসের হেলপারের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ উঠেছে ওই বাসটি আটক করা যায়নি। এছাড়া বাসের নম্বরও জানা যায়নি। তবে আমরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্য রাইদা পরিবহনের মালিক পক্ষকে থানায় ডেকেছি। আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদেরও থানায় আনা হয়েছে। দুই পক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে বিষয়টি সমাধান করা হবে। ইতোমধ্যে আমরা শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আলোচনা শুরু করেছি। আশা করছি, মালিক পক্ষ এলে বিষয়টি দ্রুত সমাধান হয়ে যাবে।

সমাধান হওয়ার আগ পর্যন্ত বাসগুলো আটক থাকবে বলে জানান তিনি।

এর আগে গত ১৫ নভেম্বর রাজধানীর রামপুরায় বিটিভি ভবনের সামনে রাইদা পরিবহনের একটি বাসে ভাড়া নিয়ে কথা কাটাকাটির জেরে এক শিক্ষার্থীকে ‘ঘাড় ধাক্কা দিয়ে’ নামিয়ে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে। পরে শিক্ষার্থীরা ক্ষিপ্ত হয়ে ওই রুটের অন্তত অর্ধশত বাস আটক করে রাখে এবং হাফ ভাড়ার দাবি তোলেন। ভাড়া নিয়ে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে অবশেষে পুলিশের মধ্যস্থতায় ‘হাফ ভাড়া’ নেওয়ার শর্তে রাজি হয় রাইদা পরিবহন কর্তৃপক্ষ।

ঢাকাটাইমস/২৯নভেম্বর/কেআর/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজধানী বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

রাজধানী এর সর্বশেষ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :