যাত্রী হয়রানি ও ভাড়া বৃদ্ধি

বিআরটিএ-বিআইডব্লিউটিএ চেয়ারম্যানকে উকিল নোটিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ২০:২৯ | প্রকাশিত : ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৯:৫৭

ডিজেলের দাম বৃদ্ধির পরে গণপরিবহন ও নৌপথে লঞ্চে অস্বাভাবিক ভাড়া বৃদ্ধি ও যাত্রীদের হেনস্থার অভিযোগ এনে বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি (বিআরটিএ) ও বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) চেয়ারম্যানকে উকিল নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

বুধবার সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মো. আবু তালেব এই নোটিশ পাঠিয়েছেন। ঢাকাটাইমসকে বিষয়টি আইনজীবী নিজেই নিশ্চিত করেছেন।

নোটিশে বাড়তি ভাড়া আদায় বন্ধ ও যাত্রীদের হেনস্থা বন্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়ে এই আইনজীবী বলেছেন, দুই সংস্থার পক্ষ থেকে ব্যবস্থা নেয়া না হলে রিট আবেদন করা হবে।

নোটিশে আইনজীবী বলেন, সম্প্রতি দেশে জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির কারণে বাস, মিনিবাস ও লঞ্চের ভাড়া বাড়ানো হয়েছে। কিন্তু ঢাকা সিটিসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে চলা পেট্রোল চালিত গাড়ি ও লঞ্চের ভাড়া অতিমাত্রায় বাড়ানো হয়েছে। এমনকি গ্যাসে চলা গাড়িরও ভাড়া বাড়িয়েছে মালিক শ্রমিক ইউনিয়ন। যার কোনো যুক্তি নেই। এগুলো এখনো চলমান রয়েছে যা নিয়ন্ত্রণ করা যায়নি।

এদিকে চাহিদা মতো অতিরিক্ত ভাড়া না দিতে চাইলে যাত্রী হয়রানীর বিষয় উল্লেখ করা হয় নোটিশে। নোটিশে ভাড়া নৈরাজ্য নিরসনে কার‌্যকর পদক্ষেপ নেয়া হয়নি বলেও দাবি করেছেন তিনি।

বাড়তি ভাড়া আদায় ও যাত্রী হয়রানি বন্ধে কার্যকর ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়ে নোটিশে এই আইনজীবী বেশ কিছু দাবির কথা বলেন। তা হলো- ঢাকাসহ সারাদেশে যে সকল সাধারণ পরিবহন গ্যাসে চলে তা নির্ধারণ করে প্রতিটি বাস, মিনিবাস, লেগুনাতে বিআরটিএর লোগোসহ নেমপ্লেট লাগাতে হবে। যাতে যাত্রীদের বুঝতে সুবিধা হয় কোনটা গ্যাসচালিত গাড়ি।

ঢাকা শহরের কোন জায়গা থেকে কোন জায়গায় কত ভাড়া কত তা নির্ধারণ করে সাইনবোর্ড কিংবা ইলেকট্রনিকস বিলবোর্ডে লিখে দেয়ারও দাবি করা হয়েছে নোটিশে। এই চার্ট যানবাহনে টানানো বাধ্যতামূলক করার দাবি করেন।

মালিকদের দাবির মুখে, বিধিমালা অনুযায়ী কিলোমিটার প্রতি বাস ও লঞ্চের ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে তারও স্পষ্ট ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছে নোটিশে।

ছাত্র-ছাত্রীদের বাস ও লঞ্চ ভাড়া অর্ধেক নিতে দ্রুত বিজ্ঞপ্তি জারি করার কথা নোটিশে উল্লেখ করা হয়েছে। একইসঙ্গে সারাদেশে কতগুলো বাস ও লঞ্চের ফিটনেস সার্টিফিকেট আছে ও কতগুলোর নেই তাও দ্রুত জানানোর কথা বলা হয়েছে নোটিশে।

(ঢাকাটাইমস/০১ডিসেম্বর/বিইউ/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :