স্বাস্থ্যবিধির প্রতিপালন নেই হোটেল-রেস্তোরাঁয়

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৫ জানুয়ারি ২০২২, ১৩:৩৫

সার্স-কোভ-২ বা কোভিড-১৯ ভাইরাস প্রতিরোধী টিকা না নিলে কেউ হোটেল রেস্তোরাঁয় বসে খেতে পারবেন না। সরকারের এমন নির্দেশনা বৃহস্পতিবার থেকে কার্যকর হওয়ার কথা। কিন্তু দুইদিন পরেও এর প্রতিপালন হচ্ছে নামমাত্র। আবার হোটেল-রেস্তোরাঁয় কর্মরত কর্মীদের অনেকেই এখনো টিকা নেননি। সেই কর্মীরায় কাজ করছেন এসব হোটেল-রেস্তোরাঁর রসুই ঘরে। পরিবেশন করছেন খাবার। যাচাই করা হচ্ছে না হোটেল- রেস্তোরাঁয় খেতে আসা মানুষের টিকা সনদ।

শনিবার রাজধানীর কয়েকটি এলাকা ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, খাবার হোটেল ও রেস্তোরাঁর কর্মীদের অনেকেই এখনো টিকা নেননি। টিকা গ্রহণ না করেও কর্মীরা কাজ করছেন। তাদের মুখে নেই মাস্ক। আবার নির্দেশনা থাকলেও খেতে আসা মানুষদের টিকা সনদের প্রতি আগ্রহ দেখাচ্ছেন না হোটেল-রেস্তোরাঁ সংশ্লিষ্টরা৷

গত সোমবার মন্ত্রীপরিষদ বিভাগ থেকে জারি করা এক প্রজ্ঞাপনে কোভিড-১৯ প্রতিরোধে ১১ দফা নির্দেশনা দেওয়া হয়৷

প্রথম নির্দেশনায় বলা হয়- দোকান, শপিংমল ও বাজারে ক্রেতা-বিক্রেতা এবং হোটেল-রেঁস্তোরাসহ সব জনসমাগমস্থলে বাধ্যতামূলকভাবে সবাইকে মাস্ক পরিধান করতে হবে। অন্যথায় তাকে আইনানুগ শাস্তির সম্মুখীন হতে হবে। তৃতীয় নির্দেশনায় বলা হয়- রেঁস্তোরায় বসে খাবার গ্রহণ এবং আবাসিক হোটেলে থাকার জন্য অবশ্যই করোনা টিকা সনদ প্রদর্শন করতে।

এসব নির্দেশনা গিত বৃহস্পতিবার থেকে কার্যকর হওয়ার কথা ছিল। দুইদিন পার হলেও বিধিনিষেধের প্রতিপালন খুব একটা চোখে পরেনি।

এরমধ্যে রাজধানীর শ্যামলির কয়েকটি হোটেল ঘুরে দেখা যায়, হোটেল সংশ্লিষ্ট বা খদ্দের কারও মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি মানার কোনো প্রবণতা নেই। হোটেল সংশ্লিষ্ট কারও মুখে নেই মাস্ক।

একই চিত্র মোহাম্মদপুর ঢাকা উদ্যান এলাকার সিটি হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্ট, মোহাম্মদীয়া হাউজিং সোসাইটির আল আমিন হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্ট, সাত মসজিদ হাউজিং, চাঁদ উদ্যান এলাকার হোটেল রেস্তোরাঁয়।

এসব হোটেল রেস্তোরাঁর কর্মীদের ভাষ্য, রেস্তোরাঁয় প্রবেশের ক্ষেত্রে খদ্দেরের টিকা সনদ দেখতে কর্তৃপক্ষ তাদেরকে কোনো নির্দেশনা দেননি। আবার তারাও অনেকে এখনো টিকা নেননি।

ঢাকাটাইমস/১৫জানুয়ারি/কারই/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজধানী বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :