মাতৃমঙ্গলে সেবা না পেয়ে রাস্তায় নেমেই সন্তান প্রসব

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৯ মে ২০২২, ১৩:০২ | প্রকাশিত : ১৯ মে ২০২২, ১১:১৬

লক্ষ্মীপুরে মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রে (মাতৃমঙ্গল) সিজারের জন্য আসা এক প্রসূতি সেবা না পেয়ে রাস্তায় সন্তান প্রসব করেছেন।

বুধবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। বর্তমানে নিজের বাড়িতেই মা ও শিশু সন্তান ভালো আছে বলে জানা যায়।

প্রসূতির স্বজনরা জানান, প্রসব ব্যথা নিয়ে বুধবার বেলা ২টার দিকে মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রে ভর্তি হন স্থানীয় সমসেরাবাদ এলাকার শ্রমিক আজগর হোসেনের স্ত্রী শিল্পী। মাগরিবের নামাজের আগে তার ব্যথা বেড়ে যায়। এসময় প্রসূতির গর্ভের সন্তান বের হয়ে আসার মূহুর্তে স্বজনরা তাড়াহুড়া করছিলেন। নার্স হিসেবে তখন দায়িত্বরত ছিলেন শারমিন ও রোশন আক্তার। তাদের অবহেলার কারণে প্রসূতির স্বজনরা নিরুপায় হয়ে রাতে রোগী নিয়ে হাসপাতাল থেকে বের হয়ে যান। এর হলে মূল ফটকের সামনেই প্রসূতি সন্তানের জন্ম দেন। এসময় আশপাশের লোকজন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অবহেলাকে দায়ী করে অন্য রোগীদের ক্ষেত্রেও একই ধরনের অভিযোগের কথা তুলে ধরেন। পরে নবজাতক ও প্রসূতিকে স্বজনরা তাদের বাড়িতে নিয়ে যান।

প্রসূতির স্বামী আজগর হোসেন অভিযোগ করে বলেন, ‘মানুষ সেবা নিতে আসে মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রে। এইখানে কোনো সেবা নেই। বরং নানা ধরনের হয়রানির শিকার হতে হয়। আমার স্ত্রীকে সেবা না দিয়ে হাসপাতাল থেকে বের করে দিয়েছে নার্স শারমিন আক্তার ও রৌশন আক্তার। পরে রাস্তায় আমার স্ত্রী ছেলে সন্তান জন্ম দেয়। এঘটনার উপযুক্ত বিচার চাই।’

তবে অভিযুক্ত নার্স শারমিন আক্তার ও রোশন আক্তার বলেন, ‘রোগীকে হাসপাতাল থেকে বের করে দেয়া হয়নি। তারা সিজার করার জন্য অন্য হাসপাতালে গেছে। এটার সঙ্গে আমাদের কোনো সম্পর্ক নেই।’

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে পরিবার-পরিকল্পনা বিভাগের উপ-পরিচালক ডা. আশফাকুর রহমান মামুন বলেন, ‘কোনো অনিয়মের অভিযোগ থাকলে সেটি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

(ঢাকাটাইমস/১৯মে/এসএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :