‘তথ্যপ্রযুক্তি দেশের অর্থনীতিতে নতুন মাত্রা দিচ্ছে’

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৯ মে ২০২২, ১৯:৪২

তথ্যপ্রযুক্তি বাংলাদেশের অর্থনৈতিক কার্যক্রমে নতুন মাত্রা এনে দিচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এনএম জিয়াউল আলম।

বৃহস্পতিবার(১৯ মে) রাজধানীর আগারগাঁওয়ের আইসিটি টাওয়ারে স্টার্টআপদের নিয়ে একটি কর্মশালায় সচিব একথা বলেন।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের (বিসিসি) আওতায় ‘উদ্ভাবন ও উদ্যোক্তা উন্নয়ন একাডেমি প্রতিষ্ঠাকরণ (iDEA)’ প্রকল্পের অনুদানপ্রাপ্ত স্টার্টআপদের মধ্য থেকে ১০টি উদীয়মান স্টার্টআপকে নিয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে ‘আইডিয়া পোর্টফোলিও স্টার্টআপস লেসনস্ লার্নিং অ্যান্ড ওয়ে ফরওয়ার্ড’ কর্মশালার তৃতীয় পর্ব।

কর্মশালাটিতে অংশগ্রহণকারী স্টার্টআপদের বর্তমান অবস্থা, চ্যালেঞ্জ, অর্জনগুলো তুলে ধরেন স্টার্টআপদের প্রতিনিধিরা। তৃতীয় পর্বে অংশগ্রহণকারী এই স্টার্টআপরা হলো- ব্লাডম্যান, অল্টারইউথ, অলিক, ট্রাক লাগবে, স্কুট, বেস্ট এইড, খেলা হবে, জেডটেক, পত্র এবং বাড়িকই টেকনোলজিস লিমিটেড।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম বলেন, প্রযুক্তির অগ্রগতির ছোঁয়া লেগেছে পুরো বিশ্বে এবং বাংলদেশও সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। স্মার্ট বাংলাদেশ বাস্তবায়নে দেশের জনগণকে বিশেষ করে তরুণ প্রজন্মকে তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ে দক্ষ হিসেবে গড়ে তোলার ক্ষেত্রেও বিভিন্ন প্রকার কার্যক্রম ইতোমধ্যে গ্রহণ করা হয়েছে ও হচ্ছে। এতে তথ্যপ্রযুক্তি বাংলাদেশের অর্থনৈতিক কার্যক্রমে এনে দিচ্ছে নতুন মাত্রা।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিসিসি নির্বাহী পরিচালক (গ্রেড-১) ড. মো. আব্দুল মান্নান। তিনি বলেন, আইডিয়া প্রকল্পের স্টার্টআপরা ভালো করছে। অনেক স্টার্টআপ ইতোমধ্যে বিদেশি বিনিয়োগ আনতে পারছে, যা সত্যিই প্রশংসনীয়। বর্তমান সরকারের এক সফল উন্নয়ন দর্শন হলো ডিজিটাল বাংলাদেশ। ডিজিটাল অর্থনীতির ক্ষেত্রেও বাংলাদেশে ইতিবাচক ধারা পরিলক্ষিত হচ্ছে।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আইডিয়া প্রকল্পের পরিচালক ও যুগ্মসচিব মো. আলতাফ হোসেন। তিনি বলেন, স্টার্টআপদের কল্যাণে আইডিয়া প্রকল্পের রয়েছে সুদূরপ্রসারী পরিকল্পনা। ইতোমধ্যে ২৬১টি স্টার্টআপকে আইডিয়া প্রকল্প থেকে ১০ লাখ টাকা করে প্রি-সিড পর্যায়ে অনুদান দেওয়ার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। আগামীতেও দেশীয় স্টার্টআপদের জন্য অনুদান দেওয়ার এই ধারা অব্যাহত থাকবে।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে ছিলেন আইডিয়া প্রকল্পের উপপ্রকল্প পরিচালক ও উপসচিব ড. মো. মিজানুর রহমানসহ আইডিয়া প্রকল্পের পরামর্শক ও কর্মকর্তারা।

সঞ্চালক ছিলেন আইডিয়া প্রকল্পের সিনিয়র কনসালটেন্ট এবং অপারেশন স্পেশালিস্ট সিদ্ধার্থ গোস্বামী।

তথ্যপ্রযুক্তিভিত্তিক যেকোনো উদ্ভাবনী আইডিয়া নিয়ে আগ্রহী স্টার্টআপদেরকে প্রি-সিড পর্যায়ে ১০ লাখ টাকা পর্যন্ত অনুদানের জন্য আবেদন করতে ভিজিট করতে হবে www.idea.gov.bd ।

(ঢাকাটাইমস/১৯মে/এমএইচ/কেএম)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :