পঞ্চগড়ে বানানো হয়েছে পদ্মা সেতুর রেপলিকা

পঞ্চগড় প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৪ জুন ২০২২, ১৯:৩৬

২৫ জুন শনিবার উদ্বোধন হতে যাচ্ছে বাঙালির স্বপ্নের পদ্মা সেতু। দীর্ঘ চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার পর বহুল প্রত্যাশার এই সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে দেশের বিভিন্ন জেলায় উদযাপন উৎসব পালন করা হবে। এ নিয়ে সর্বোত্তরের জেলা পঞ্চগড়েও দিনটি স্মরণীয় করে রাখতে স্থানীয় বীর মুক্তিযোদ্ধা স্টেডিয়ামে বানানো হচ্ছে পদ্মা সেতুর রেপলিকা (অবিকল প্রতিরূপ)।

এ ছাড়া জেলা শহর থেকে উপজেলা শহরের বিভিন্ন মোড়, গুরুত্বপূর্ণ সড়ক মহাসড়ক সজ্জিত করা হচ্ছে। ব্যানার ফেস্টুন আর বিলবোর্ড-এ ভরে গেছে গোটা এলাকা। উদ্বোধন উৎসব উদযাপনে চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি।

জেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, এর আগে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী পালন উপলক্ষে লাল সবুজের মানবমানচিত্র করা হয়েছিল। স্থানীয় পর্যায় থেকে শুরু করে দেশের বিভিন্ন জেলাতেও এ নিয়ে ব্যাপক উৎসাহ দেখা যায়। এবার কাঠ, বাঁশ, কাপড় দিয়ে পদ্মা সেতুর রেপলিকা তৈরি করা হচ্ছে। এটি হবে স্বপ্নের পদ্মার সেতুর অবিকল প্রতিরূপ। শহরের বিভিন্ন দেয়ালে পদ্মা সেতুর চিত্র আঁকা হচ্ছে। রেপলিকাসহ শহর সজ্জিতকরণে প্রায় অর্ধশত শ্রমিক দিনরাত কাজ করছেন। রেপলিকা তৈরিসহ এসব প্রস্তুতির আয়োজন দেখতে প্রতিদিন শতশত মানুষ ভিড় করছেন।

পঞ্চগড়ের স্টেডিয়াম থেকে প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধন অনুষ্ঠান সরাসরি উপভোগ করার জন্য একাধিক প্রজেক্টরের ব্যবাস্থা করা হচ্ছে। এই স্টেডিয়ামে ১০ হাজারের বেশি মানুষ বসে অনুষ্ঠান উপভোগ করার জন্য করা হয়েছে বিশাল প্যান্ডেল। তারা টিভির পর্দার পাশাপাশি এখানে বসেই গর্বের পদ্মা সেতুর অবিকল প্রতিরূপ দেখতে পারবেন। এছাড়া শনিবার সকাল ৯টায় আনন্দ শোভাযাত্রা, সন্ধ্যায় সেরে বাংলা মোড়ে আতশবাজি ও আলোকসজ্জা এবং রাতে পঞ্চগড় সরকারি অডিটোরিয়ামে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। সেখানে স্থানীয় শিল্পী ছাড়াও অতিথি শিল্পীরা গান পরিবেশন করবেন।

শুক্রবার সরেজমিন বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, জেলার তেঁতুলিয়া, আটোয়ারী, বোদা এবং দেবীগঞ্জ উপজেলাজুড়ে উদ্বোধন অনুষ্ঠানের উদযাপনের জন্য নানা কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। উপজেলা শহরেও সাজানোর কাজ শেষ পর্যায়ে। পদ্মা সেতুর ছবি সংবলিত বিভিন্ন ব্যানার, রঙিন পতাকায় সাজানো এলাকা। এ নিয়ে উৎসবের আমেজ দেখা গেছে শহর থেকে গ্রামজুড়ে। জেলা এবং উপজেলা প্রশাসন ছাড়াও স্থানীয় আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকেও নানান কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে। শনিবার দিনভর নানা কর্মসূচির পর জেলা আওয়ামী লীগ অফিসের কাছে মুক্তমঞ্চে রাতভর চলবে ব্যান্ড সঙ্গীত।

জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার সাদাত সম্রাট বলেন, পদ্মা সেতু নিয়ে আমাদের অনেক স্বপ্ন ছিল। প্রধানমন্ত্রীর যোগ্য নেতৃত্বে সেই স্বপ্ন আজ বাস্তবে রূপ নিয়েছে। অনেক ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করে এই সেতু করেছে বাংলাদেশ সরকার। আমরা নানা অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে বিশেষ এই দিনটি স্মরণীয় করে রাখতে চাই। সেতু উদ্বোধন নিয়ে পঞ্চগড়ে দলীয় নেতাকর্মীসহ স্থানীয় মানুষের মধ্যে উল্লাস দেখা গেছে। ইতোমধ্যে পদ্মা সেতুর ছবি দিয়ে পোস্টার, ব্যানার আর বিলবোর্ডে ভরে গেছে শহরের বিভিন্ন এলাকা।

পঞ্চগড় সরকারি মহিলা কলেজের অর্থনীতি বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত বিভাগীয় প্রধান শিক্ষাবিদ হাসনুর রশিদ বাবু বলেন, পদ্মা সেতু আমাদের আমাদের গর্বের প্রতীক, আমাদের সক্ষমতার প্রতীক। এ নিয়ে দেশ বিদেশে গভীরতর ষড়যন্ত্র হয়েছিল। প্রধানমন্ত্রীর দক্ষ নেতৃত্ব ও ঐকান্তিক প্রচেষ্টার ফলে আমাদের দেশের টাকায় পদ্মা সেতু সক্ষম হয়েছি। এজন্যই আজ আমরা গর্ববোধ করছি। এখন আমরা নিজস্ব অর্থয়নে যে কোন মেগা প্রকল্প বাস্তবায়নে সক্ষম, তা দেশ বিদেশে প্রমাণিত হয়েছে।

জেলা প্রশাসক জহুরুল ইসলাম বলেন, স্বপ্নের পদ্মা সেতু আমাদের জন্য একটা চ্যালেঞ্জ ছিল। প্রধানমন্ত্রী দক্ষভাবেই সেই চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করেছেন। স্বপ্নের পদ্মা সেতু আজ পদ্মা নদীর বুকে স্বগৌরবে জেগে উঠেছে। দেশের বেশ কয়েকটি মেগা প্রকল্প চালু থাকলেও পদ্মা সেতু উদ্বোধনের বিষয়টি একেবারে ভিন্ন। এখানে আমাদের আবেগ জড়িয়ে আছে। এই সেতু উদ্বোধনের মাধ্যমে বিশ্ব দরবারে বাঙালি জাতির মাথা উঁচু করে দাঁড়াবার সক্ষমতা আবারও প্রমাণিত হয়েছে। দিনটি স্মরণীয় করে রাখতে এবং গর্বের পদ্মা সেতু উদ্বোধনের মুহূর্ত ধরে রাখতে দিনভর আমরা নানা কর্মসূচি পালন করব। এজন্য বিশেষ করে স্থানীয় বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম স্টেডিয়াসে পদ্মা সেতুর রেপলিকা তৈরি করা হয়েছে। স্টেডিয়ামে বসে সর্বোত্তরের মানুষ আমাদের গৌরবের প্রতীক দক্ষিণের পদ্মা সেতুর অবকল প্রতিরূপ দেখতে পাবেন।

(ঢাকাটাইমস/২৪জুন/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :