নবাবগঞ্জে হেলিকপ্টার দুর্ঘটনার কথা মনে আছে? পাইলট ছিলেন র‌্যাবের পরিচালক, তিনি আর নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০৯ আগস্ট ২০২২, ১৮:৫৯ | প্রকাশিত : ০৯ আগস্ট ২০২২, ১৮:১৯

গত ২৭ জুলাই ঢাকার নবাবগঞ্জে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর বেল-২০৬ হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় পড়েছিল। ‘জরুরি অবতরণ পদ্ধতি’ অনুশীলনের সময় হেলিকপ্টারটিতে যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দেয়। পরে সেটি কৈলাইল ইউনিয়নের ভাঙ্গাভিটা এলাকায় একটি ধানখেতে জরুরি অবতরণ করতে গিয়ে দুর্ঘটনার শিকার হয়।

এই হেলিকপ্টারের পাইলট ছিলেন র‌্যাবের এয়ার উইংয়ের পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মোহাম্মদ ইসমাইল হোসেন। দুর্ঘটনায় তিনি মেরুদণ্ডে গুরুতর আঘাত পান। হেলিকপ্টারে তার সহযোগী ছিলেন মেজর শামস। ঘটনাস্থল থেকে তাদের উদ্ধার করে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) ভর্তি করা হয়।

গত ৫ আগস্ট লেফটেন্যান্ট কর্নেল ইসমাইলকে উন্নত চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয় সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে। পরদিন তার মেরুদণ্ডে সফল অস্ত্রোপচারও হয়। কিন্তু শরীরে বিভিন্ন জটিলতার কারণে অবস্থার অবনতি ঘটতে থাকে। আজ মঙ্গলবার দুপুরে সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

মৃত্যুকালে ইসমাইল হোসেনের বয়স হয়েছিল ৪৫ বছর। তিনি স্ত্রী ও দুই ছেলে রেখে গেছেন। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি ভদ্র, বিনয়ী, ধর্মানুরাগী এবং অত্যন্ত দক্ষ একজন পাইলট ছিলেন।

লে. কর্নেল মোহাম্মদ ইসমাইল হোসেনের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ দুপুরে এক শোকবার্তায় প্রধানমন্ত্রী র‌্যাবের এয়ার উইং পরিচালকের পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

এদিকে র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখা থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, লে. কর্নেল ইসমাইল হোসেনের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, সেনাবাহিনী-প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. আখতার হোসেন, পুলিশ-প্রধান ড. বেনজীর আহমেদ, র‍্যাবের মহাপরিচালক চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। তারা শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

(ঢাকাটাইমস/৯আগস্ট/এসএস/মোআ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

প্রশাসন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :