উত্তরা ফাইন্যান্সের চেয়ারম্যানসহ ৯ কর্মকর্তার দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৯:৫৫ | প্রকাশিত : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৯:২৬

গ্রাহকদের সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকা আত্মসাৎ ও পাচারের অভিযোগে উত্তরা ফাইন্যান্সের চেয়ারম্যান ও এমডিসহ নয় কর্মকর্তার দেশ ত্যাগে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

আর্থিক অনিয়মের অভিযোগ অনুসন্ধান করতে দুদকের আবেদনের প্রেক্ষিতে সোমবার শুনানি শেষে আদালত তাদের ৬০ দিনের জন্য বিদেশ ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা জারি করেন।

ঢাকা মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালতের বিচারক মো. আসাদুজ্জামান এ আদেশ দিয়েছেন।

যাদের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে তারা হলেন- উত্তরা ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেডের ভাইস চেয়ারম্যান মো. মতিউর রহমান, পরিচালক মো. মজিবর রহমান, ইউআইএফএলের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক এস এম শামসুল আরেফিন, ইউআইএফএলের চেয়ারম্যান রশীদুল হাসান, অনিল চন্দ্র দাস, হেড অব ট্রেজারির ভাইস প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মাঈনউদ্দিন ও কাজী আরিফুজ্জামান, নবগঙ্গা ট্রেডিং এন্টারপ্রাইজ লিমিটেডের পরিচালক শংকর কুমার সাহা এবং শম্পা রানী সাহা।

বিভিন্ন অনিয়ম ও আমানতকারীদের অর্থ আত্মসাতের সম্পৃক্ততার দায়ে গত জুনে প্রতিষ্ঠানটির এমডি শামসুল আরেফিনকে অপসারণ করে বাংলাদেশ ব্যাংক। আর্থিক প্রতিষ্ঠানটির ভারপ্রাপ্ত এমডি মুন রানী দাসের দুদক চেয়ারম্যান বরাবর পাঠানো চিঠির প্রেক্ষিতে দুদক এই ব্যবস্থা নেয়।

প্রতিষ্ঠানটির বার্ষিক আর্থিক প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, উত্তরা ফাইন্যান্সের তিন হাজার ৪৪০ কোটি টাকার কোনো হদিস নেই। বিপুল অংকের এই টাকা গরমিল পাওয়া কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশ বহিঃনিরীক্ষক প্রতিষ্ঠানের নিরীক্ষায় নানা অনিয়ম পাওয়া যায় শামসুল আরেফিনকে অপসারণ করা হয়।

এছাড়া দুদকে পাঠানো উত্তরা ফাইন্যান্সের চিঠিতে বলা হয়েছে, ‘শামসুল আরেফিনসহ প্রতিষ্ঠানটির শীর্ষ কর্মকর্তারা উত্তরা ফাইন্যান্সের বিপুল পরিমাণ অর্থ আত্মসাৎসহ নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির প্রমাণ বহিঃনিরীক্ষক প্রতিষ্ঠানের বিশেষ নিরীক্ষায় উঠে এসেছে।

(ঢাকাটাইমস/২৬সেপ্টেম্বর/এসআর/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

অর্থনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :