উৎসবের মাঝেই গ্রেপ্তার খ্যাতিমান পরিচালক, উত্তপ্ত টলিউড

বিনোদন ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৪ অক্টোবর ২০২২, ১২:৫৬

কলকাতাজুড়ে উৎসব। চলছে সনাতন ধর্মের সবচেয়ে বড় উৎসব দুর্গাপূজা। তারই মাঝে সোমবার অষ্টমীর দিনে গ্রেপ্তার হলেন ওপার বাংলার নামকরা পরিচালক কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়, বিকাশ রঞ্জনসহ আরও কয়েকজন। এ নিয়ে উত্তপ্ত টলিউড। কিন্তু কেন গ্রেপ্তার হলেন পরিচালক?

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবর বলছে, সপ্তমীর রাতে রাসবিহারী চত্বরে প্রতাপাদিত্য রোডে সিপিএমের বই বিপণিতে হামলা ও ভাঙচুর করা হয়। ভুক্তভোগীদের দাবি, তৃণমূলের ‘আশ্রিত দুষ্কৃতী’রা এই হামলা চালিয়েছে। ওই বইয়ের বিপণিতে ‘চোর ধরো, জেলে ভরো’র পোস্টার দেখেই চটে যায় শাসক দলের সদস্যরা। টালিগঞ্জ থানায় দায়ের হয় অভিযোগ।

অষ্টমীর বিকেলে সেখানেই একটি প্রতিবাদ সভার ডাক দিয়েছিল সিপিএম। সোমবার সেই প্রতিবাদ সভা ঘিরে ফের পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। সেই সময়ই গ্রেপ্তার করা হয় পরিচালক কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়, বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্যসহ আরও কয়েকজনকে।

সোমবার সকালে সোশ্যাল মিডিয়ায় পরিচালক কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায় লেখেন, ‘জানি আজ অষ্টমী -আনন্দের দিন। তবু এই আবেদন জানাতে বাধ্য হচ্ছি। সহমত হলে এই বক্তব্য ছড়িয়ে দিতে বিশেষ অনুরোধ করছি। শুভদীপ গাঙ্গুলী রাসবিহারী অঞ্চলে বসবাসকারী জনৈক বামপন্থী মানুষ- অঞ্চলের সমাজকর্মী এবং নিজস্ব পড়াশোনা নিয়ে ব্যস্ত থাকা একজন নির্বিরোধী লোক।’

‘শুভদীপ মূলত বাংলা ও বিশ্ব সাহিত্যের একনিষ্ট পাঠক। লেখালিখির কাজ করে শুভদীপ। কাল সন্ধ্যায় শুভদীপ আক্রান্ত হলেন। সপ্তমীর দিন সন্ধ্যায় (রবিবার) রাসবিহারীতে ভারতের মার্ক্সবাদী কমিউনিস্ট পার্টি আয়োজিত বইয়ের স্টলে শুভদীপ ও তার অগ্রজসম রানাদা বসেছিলেন। সেই সময় অঞ্চলের শাসক দল আশ্রিত দুই দুষ্কৃতী সান্টু ও গদাইয়ের নেতৃত্বে কয়েকজন সমাজবিরোধী এসে রাসবিহারীর সেই বইয়ের স্টল আক্রমণ করে, বইয়ের স্টল ভেঙে দেয় ও শুভদীপ ও রানাদাকে মারধর করে।’

‘গোটা ঘটনাটাই কর্মরত পুলিশের চোখের সামনেই ঘটে এবং পুলিশ নির্বিকার মুখে দাঁড়িয়ে ঘটনাটা দেখে। সংলগ্ন কালীঘাট অঞ্চলের কমরেডরা এসে শুভদীপ ও রানাদাকে বাঁচান এবং পরিস্থিতি সামাল দেন। যদিও তারা যথেষ্ট আহত। নিয়মানুগভাবে ঘটনার পর এই আক্রমণের কথা বিবৃত করে টালিগঞ্জে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।’

কমলেশ্বর জানান যে, অষ্টমীর বিকাল ৫টায় ওই জায়গায় একটি প্রতিবাদ সভা সংগঠিত হতে চলেছে। সেই প্রতিবাদ সভায় কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়ের পাশাপাশি উপস্থিত ছিলেন আইনজীবী তথা সাংসদ বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য, রবীন দেব, সিপিএমের কলকাতা জেলা সম্পাদক কল্লোল মজুমদারসহ আরও অনেকে। প্রতিবাদ সভা এবং বই বিপণি ফের চালু করার সময়ে ফের উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পরিস্থিতি। সিপিএমের অভিযোগ, তৃণমূলের দুষ্কৃতীরা হামলা চালালেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে প্রতিবাদীদের।

এদিন পরিচালকের গ্রেপ্তারি নিয়ে টুইটারে নিন্দায় সরব হয় টলিউড। সৃজিত মুখোপাধ্যায় লেখেন, ‘বইয়ে ভীত? কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়কে গ্রেপ্তার করার নিন্দার ভাষা নেই। মূল্য যাই হোক, তোমার সঙ্গে আছি কমলদা।’

আবীর চট্টোপাধ্যায় লেখেন, ‘আমরা তোমাকে ভালোবাসি কমলদা। তোমাকে নিয়ে গর্বিত।’ কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায় লেখেন, ‘ডাক্তারবাবু ক্ষতিটা কিন্তু তোমার হচ্ছে না।’ অভিনেতা অনিন্দ্য চট্টোপাধ্যায় টুইট করেন, ‘এক কথায় অপ্রীতিকর, একরাশ ধিক্কার।’ পরিচালক অনিরুদ্ধ রায় লেখেন, ‘কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়ের গ্রেপ্তারি লজ্জাজনক এবং কারণ কী? একটা বই স্টলের জন্য, সঙ্গে আছি কমল।’

(ঢাকাটাইমস/৪অক্টোবর/এজে)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিনোদন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :