বন্ড ছেড়ে প্রিমিয়ার ব্যাংক ৬০০ কোটি ও আইপিডিসি ফাইন্যান্স ১৫০ কোটি টাকা তুলবে

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৭ নভেম্বর ২০২২, ১৯:২৪

দেশের পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত প্রতিষ্ঠান দ্যা প্রিমিয়ার ব্যাংক লিমিটেড ও আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেডকে বন্ড ছেড়ে পুঁজিবাজার থেকে ৭৫০ কোটি টাকা উত্তোলনের জন্য অনুমোদন দিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) ।

বৃহস্পতিবার বিএসইসির ৮৮৫তম সভায় প্রতিষ্ঠান দুটিকে ৭ ও ৬ বছর মেয়াদি বন্ড ছেড়ে টাকা উত্তোলনের প্রস্তাব অনুমোদন করা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মোহাম্মদ রেজাউল করিম। তিনি বলেন, আজকের কমিশন সভায় বন্ড ছেড়ে পুঁজিবাজার থেকে প্রিমিয়ার ব্যাংককে ৬০০ কোটি টাকা এবং আইপিডিসি ফাইন্যান্সকে ১৫০ কোটি টাকা উত্তোলনের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

বিএসইসির তথ্যমতে, সভায় অভিহিত মূল্যে দ্যা প্রিমিয়ার ব্যাংককে ৭ বছর মেয়াদি নন-কনভার্টেবল, আনসিকিউরড, ফুললি রিডিমেবল, ফ্লোটিং রেট সাব অর্ডিনেট বন্ড ছেড়ে ৬০০ কোটি উত্তোলনের প্রস্তাব অনুমোদন করেছে। যার রেইজ অব কূপন রেট ৭ থেকে ৯ টাকা এবং এটি প্রাইভেট প্লেসমেন্টের মাধ্যমে ইস্যু করা হবে। এই বন্ডের প্রতি ইউনিটের অভিহিত মূল্য ৬০ লাখ টাকা।

উল্লেখিত এই বন্ড ইস্যুর মাধ্যমে অর্থ উত্তোলন করে দ্যা প্রিমিয়ার ব্যাংকের টায়ার-১১ ক্যাপিটাল বেইজকে শক্তিশালী করবে। বন্ডের ট্রেজারি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছে ডেল্টা ব্র্যাক হাউজিং ফাইন্যান্স লিমিটেড এবং লিড অ্যারেঞ্জার হিসেবে কাজ করছে ইউসিবি ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড। বন্ডটি অল্টারনেটিভ ট্রেডিং বোর্ড তালিকাভুক্ত হবে।

একই সভায় আইপিডিসি ফাইন্যান্সকে ১৫০ কোটি টাকার ৭ বছর মেয়াদি নন-কনভার্টেবল ফুললি রিডিমেবল, আনসিকিউরড ফ্লোটিং রেট সাব অর্ডিনেটের প্রস্তাব অনুমোদন করেছে। যার রেইজ অব কূপন রেট ৭ থেকে ৯ টাকা এবং এটি প্রাইভেট প্লেসমেন্টের মাধ্যমে ইস্যু করা হবে। এই বন্ডের প্রতি ইউনিটের অভিহিত মূল্য ৬০ লাখ টাকা। প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী ও উচ্চ সম্পদশালী একক বিনিয়োগকারীদের মাঝে প্রাইভেন্ট প্লেসমেন্টের মধ্যে বন্ডটি ইস্যু করা হবে।

উল্লেখিত এই বন্ড ইস্যুর মাধ্যমে উত্তোলিত অর্থ আইপিডিসির টায়ার-১১ ক্যাপিটাল বেইজকে শক্তিশালী করতে এবং ভবিষ্যৎ প্রবৃদ্ধিতে ব্যবহার করা হবে। এই বন্ডের অভিহিত মূল্য এক কোটি টাকা। বন্ডটির ট্রেজারি হিসাবে দায়িত্ব পালন করছে সিএপিএম অ্যাডভাইজরি লিমিটেড এবং লিড অ্যারেঞ্জার হিসেবে কাজ করছে ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেড। বন্ডটি অল্টারনেটিভ ট্রেডিং বোর্ড তালিকাভুক্ত হবে।

(ঢাকাটাইমস/১৭নভেম্বর/এসকেএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

পুঁজিবাজার বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :