প্রথমার্ধে ১ গোলে এগিয়ে অস্ট্রেলিয়া

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ২৬ নভেম্বর ২০২২, ১৭:৩৮ | প্রকাশিত : ২৬ নভেম্বর ২০২২, ১৬:৫৩

কাতার বিশ্বকাপের ৭ম দিনের প্রথম ম্যাচে তিউনিসিয়ার বিপক্ষে প্রথমার্ধে ১ গোল দিয়ে এগিয়ে রয়েছে অস্ট্রেলিয়া। ডি গ্রুপে এটি দুদলের দ্বিতীয় ম্যাচ।

শনিবার বাংলাদেশ সময় বিকাল ৪টায় আল জানুব স্টেডিয়ামে মাঠে নামে তিউনিসিয়া ও অস্ট্রেলিয়া।

ম্যাচের ২২ মিনিটের মাথায় ডি বক্সের মধ্যে হেডে গোল করেন অস্ট্রেলিয়ান স্ট্রাইকার ডিউক।

এর আগে ম্যাচের শুরুতে দুদলের হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের আভাস পাওয়া যায়। ম্যাচের প্রথম ১০ মিনিট অস্ট্রেলিয়া ও তিউনিসিয়া সমানে সমান মাঠে আধিপত্য বিস্তার করে। এর মধ্যেই অস্ট্রেলিয়া একটি শট নেয়। তবে এটি অনটার্গেট ছিল না।

ম্যাচের ১৮ মিনিটে সুযোগ এসিছিল তিউনিসিয়া সামনে। ডিফেন্ডার আবদি মাঝ মাঠ থেকে বল টেনে নিয়ে গেলেও অস্ট্রেলিয়া জালে জড়াতে পারেননি। উল্টো ম্যাচের ২২ মিনিটের মাথায় গোল করে বসে অস্ট্রেলিয়া। ডি বক্সের মধ্যে হেডে গোল করেন অস্ট্রেলিয়ান স্ট্রাইকার ডিউক।

এরপর ম্যাচে ব্যাকফুটে চলে যায় তিউনিসিয়া। ২৬ মিনিটে ফাউল করে হলুদ কার্ড পান তিউনিস ডিফেন্ডার লাইদুনি। অপরদিকে প্রতিপক্ষের শিবিরে আবারো আক্রমণ করে অস্ট্রেলিয়ান স্ট্রাইকাররা। ৩৪ মিনিটের মাথায় দুর্দান্ত একটি সুযোগ মিস হয়। ডি বক্সের মাঝ বরাবর মিডফিল্ডার আরভিনের ডান পায়ের শটটি গোল বার ছুতে পাড়েনি।

তবে ম্যাচের ৪০ মিনিটে পাল্টা আক্রমণে যায় তিউনিসিয়া। তবে গোলরক্ষক রায়ানের ক্ষিপ্রতায় খুব কাছে থেকেও গোল পায়নি তিউনিসিয়া। ম্যাচে প্রথমার্ধে ১-০ গোলে এগিয়ে রয়েছে অস্ট্রেলিয়া।

বিরতিতে যাওয়ার আগে মাঠ দখলের লড়াইয়ে দুদল সমান ছিল। এ সময়ের মধ্যে অস্ট্রেলিয়া ৭টি শট নেয় এরমধ্যে ২টি ছিল অনটার্গেট। এছাড়া ৬টি ফাউল ও দুটি কর্ণারের সুযোগ পায়া তারা। অপরদিকে ৪টি শট নেয় তিউনিসিয়া। এর মধ্যে একটিও অনটার্গেট ছিল না। এসময় ৯টি ফাউল করে ১টি হলুদ কার্ড যায় তিউনিস শিবিরে। ১টি সেভ ও ২টি কর্ণারের সুযোগ পায় তারা।

দ্বিতীয়ার্ধ:

দ্বিতীয়ার্ধে মাঠে নেমে ম্যাচের ৫০ ও ৫২ মিনিটে পরপর দুটি ফ্রি কিক পেয়েও কাজে লাগাতে পারেনি তিউনিসিয়া। প্রথম ফ্রি কিকটি সেভ করেন অস্ট্রেলিয়ান গোলরক্ষক রায়ান। শুরুতে এলোমেলো তিউনিস শিবির দ্বিতীয়ার্ধে পাসিং খেলায় মনযোগী হয়। এতে বেশ কয়েকটি সুযোগ তাদের ডেরায় এলেও একটিও কাজে লাগাতে পারেনি।

ম্যাচের ৫৭ মিনিটে ডিউকের সামনে আরেকটি গোলের সুযোগ এসেছিল। এবারের হেডারটি মিস করেন তিনি। এর ৪ মিনিটের মাথায় পাল্টা সুযোগ পায় তিউনিসিয়া। ডি বক্সের বাইরে থেকে বদলি খেলোয়ার সেসি ডান পায়ের শটটি গোলবার মিস করে। গোলের দেখা পেতে মরিয়া তিউনিসিয়ার স্ট্রাইকাররা থেমে থাকেননি। আঘাতের পর পাল্টা আঘাত হানেন অস্ট্রেলিয়া শিবিরে। ম্যাচের ৭০ থেকে ৭৫ মিনিটে বেশ দুর্দান্ত শট প্রতিরোধ করেন গোলরক্ষক।