বারবার গরম করে খাবার খেলে স্বাস্থ্যঝুঁকির শঙ্কা

ফিচার ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১২:০৫ | প্রকাশিত : ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১০:৪২

ব্যস্তময় জীবনে সময় বাঁচানোর জন্য রান্না করা খাবার আমরা পরদিনের জন্য রেখে দিই। পরে সেই খাবার পুনরায় গরম করে খাই। তবে বিষয়টি খুব একটা স্বাস্থ্যসম্মত নয়। দৈনন্দিন খাদ্যতালিকার এমন কিছু খাবার রয়েছে, যেগুলো বারবার গরম করে খেলে পুষ্টিগুণ চলে যায় এমনকি বিষক্রিয়াও হতে পারে। যেসব খাবার পুনরায় গরম করলে বিপদ। বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, যেকোনো খাবার যতটা টাটকা খাওয়া সম্ভব ততই ভালো। চলুন জেনে নেওয়া যাক এমন কিছু খাবার সম্পর্কে, যেসব খাবার বারবার গরম করে খেলে বিপদ ডেকে আনতে পারে।

ডিম

রান্না করা ডিম বারবার গরম করলে তা বিষাক্ত হয়ে উঠতে পারে। এ ছাড়া ডিমে রয়েছে নাইট্রোজেন; যেটা অক্সিডাইজড উৎপন্ন করে ক্যানসারের ঝুঁকি বাড়ায়। এ ছাড়া গরম করা ডিমে নানা ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া জন্মে। এসব ব্যাকটেরিয়া পেটের জন্য খুবই ক্ষতিকর।

মুরগির মাংস

মাংসের ক্ষেত্রে বেশিবার গরম করে খাওয়ার ঘটনাটি বেশি ঘটে। তবে একটি বিষয় মাথায় রাখা জরুরি ডিমের মতো মুরগির মাংসতেও প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন থাকে। তাই এটিও ডিমের মতো একইভাবে আপনার ক্ষতি করতে পারে। মুরগির মাংস গরম করার সময়ে প্রোটিনের গঠন খানিকটা বদলে যায়, যা খেলে বদহজমের সমস্যা দেখা দিতে পারে। একান্তই মাংস বেশি পরিমাণে রেঁধে ফেললে ফ্রিজ থেকে বার করে ঘরোয়া তাপমাত্রায় রেখে খান।

আলু

রান্নার পর ফ্রিজে না রাখলে আলুর মধ্যে এক ধরনের ব্যাকটেরিয়া (ক্লসট্রিডিয়াম বটুলিনাম) জন্মায়। অনেক সময় আলুর তরকারি রান্না করে তা ঢাকনা দেওয়া পাত্রে রাখলেও এই ব্যাকটেরিয়া জন্মায়। আলুর তরকারি পুনরায় গরম করলেও তা নষ্ট হয় না। ফলে ঠান্ডা হওয়ার পরই আলুর তরকারি ফ্রিজে রাখুন। আলুর তরকারি বারবার গরম করে খাবেন না। এতে আলুর যে নিজস্ব পুষ্টিগুণ, তা নষ্ট হয়ে যেতে পারে। গরম করা আলুর তরকারি খেলে পেটের সমস্যা হওয়ার ঝুঁকি থেকে যায়।

ভাত

সময় এবং গ্যাস বাঁচাতে অনেকেই দু’বেলার ভাত একসঙ্গে করে রাখেন। গ্যাস থেকে নামানোর পরে ভাত যদি ঘরের তাপমাত্রাতেই রেখে দেওয়া হয়, তা হলে ভাত ঠান্ডা হয়ে গেলে নানা ব্যাক্টেরিয়া জন্মাতে শুরু করে। সেই ঠান্ডা হওয়া ভাত যদি আবার গরম করা হয়, তবে ব্যাক্টেরিয়াগুলোর ক্ষতিকারক প্রভাব বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে।

শাক

পুঁইশাক, পালংশাক, লালশাক— কোনও ধরনের শাকই দ্বিতীয় বার গরম করা উচিত নয়। শাকপাতায় নাইট্রেট থাকে। রান্না করা শাকের তরকারি পুনরায় গরম করা হলে ওই নাইট্রেট থেকে নাইট্রোস্যামাইন নামের এক ধরনের রাসায়নিক পদার্থ তৈরি হয়, যা শরীরের ক্ষতি করে।

চা

এটা আমাদের অনেকেরই জানা যে, একবার চা বানানোর পর তা ঠান্ডা হয়ে গেলে পুনরায় গরম করা উচিত নয়। কারণ চায়ের মধ্যে ট্যানিক অ্যাসিড থাকে। তৈরি করা চা ফের গরম করে পান করলে লিভারের ক্ষতি হতে পারে।

মাশরুম

গবেষকদের মতে, এনজাইম ও মাইক্রো অর্গানিজমস মাশরুমের মধ্যে প্রোটিনের উপাদান নষ্ট করে দেয়। সঠিকভাবে রাখা না হলে বা রি-হিট করলে মাশরুম নষ্ট হয়ে যায়। এমনকি এতে পেট খারাপও হতে পারে। তবে ২৪ ঘণ্টা ফ্রিজে রাখার পর ৭০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে মাশরুম গরম করা যেতে পারে বলে জানিয়েছেন গবেষকরা।

(ঢাকাটাইমস/৩০ নভেম্বর/আরজেড)

সংবাদটি শেয়ার করুন

ফিচার বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :