অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের মত

ধূমপান ছাড়তে ভেপিং কার্যকর

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৪:১৭ | প্রকাশিত : ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৪:১০

ধূমপানে আসক্তি কাটাতে ভেপিং নিকোটিন রিপ্লেসমেন্ট থেরাপির অন্যান্য পদ্ধতি থেকে দ্বিগুণ কার্যকর। ভেপিংয়ের ছয় মাসের ব্যবহারে ধূমপান ছাড়ার সম্ভাবনা নিকোটিন গাম বা প্যাচের তুলনায় দ্বিগুণ।

সম্প্রতি যুক্তরাজ্যের ঐতিহ্যবাহী অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের গবেষণায় ভেপিংয়ের এই কার্যকারিতার দেখা পেয়েছেন। ভেপিং একেবারে ঝুঁকিমুক্ত নয়, তবে প্রচলিত সিগারেটের তুলনায় বহুলাংশে কম ঝুঁকিপূর্ণ বলে স্পষ্ট দেখা গিয়েছে ঐ গবেষণায়।

এছাড়াও যুক্তরাজ্যের হেলথ সিকিউরিটি এজেন্সি (পূর্বের পাবলিক হেলথ অব ইংল্যান্ড) এর গবেষণায় দেখা গেছে, ভেপিং প্রচলিত সিগারেটে চেয়ে শতকরা ৯৫ ভাগ কম ক্ষতিকর। অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের উপাত্ত সেই যুগান্তকারী এই গবেষণাকে সমর্থন করল।

সাম্প্রতিক গবেষণাকে স্বাগত জানিয়ে ক্যানসার বিশেষজ্ঞরা বলছেন, নতুন নতুন গবেষণায় উপাত্ত থেকে ক্রমশ স্পষ্ট হচ্ছে, ভেপিং ধূমপান ছাড়ার ক্ষেত্রে কার্যকর উপায়। ভেপিংয়ে প্রচলিত সিগারেটের মতো ক্যানসারে অন্যতম অনুঘটক কার্সিনোজেন নেই। তাই এটাকে অনেক নিরাপদ বিবেচনা করা হয়।

গবেষণা দলের সদস্য ও অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞান বিশেষজ্ঞ ড. নিকোলা লিন্ডসন বলেন, ভেপিং তুলনামূলক নতুন পণ্য। এর দীর্ঘমেয়াদী ব্যবহারের প্রভাব এখনো স্পষ্ট নয়। তবে একটি বিষয় নিশ্চিত, ভেপিং প্রচলিত সিগারেট তুলনায় কম ক্ষতিকর। যুক্তরাজ্যে ক্যানসারে বছরে গড়ে ৫৫ হাজার মানুষ মারা যান। এই পরিস্থিতির উত্তোরণে ভেপিং কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারে বলে করেন গবেষকেরা।

যুক্তরাজ্যে ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিসও মনে করে ভেপিং ধূমপানের আসক্তি কাটাতে সাহায্য করে। ইংল্যান্ড প্রথম দেশ হিসেবে ধূমপান হ্রাসের জন্যে প্রেসক্রিপশন হিসেবে ভেপিং ব্যবহারে পরামর্শ দেওয়ার চিন্তাভাবনা করেছে। বিভিন্ন গবেষণা আর সরকারি সংস্থার উৎসাহের কারণে যুক্তরাজ্যে ভেপিং ব্যবহারকারী সংখ্যাও দ্রুত বাড়ছে। ২০২১ সালে যেখানে ভেপারের হার ছিল চার শতাংশ, চলতি বছর তা দ্বিগুণের বেশি বেড়ে আট দশমিক ছয় শতাংশে পৌঁছেছে।

অনুমোদন পাওয়ার পর যুক্তরাজ্যের চিকিৎসকেরা ব্যক্তি ভেদে ধূমপান ছাড়ার জন্য প্রয়োজন অনুযায়ী প্রেসক্রিপশন হিসেবে ভেপিং দিতে পারবেন। তবে শিশু এবং অধূমপায়ীদের বেলায় ভেপ ব্যবহার না করার নিষেধাজ্ঞা থাকবে।

প্রধান গবেষক, ড. জেমি হার্টম্যান বলেন, এক দশকের বেশি সময় আগে বাজারে আসার পর থেকেই ভেপিং নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যম ও জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মাঝে ভুল ধারণার সৃষ্টি হয়েছে। এই প্রথম তাদের গবেষণায় স্পষ্ট হলো ধূমপান ছাড়ার বেলায় ভেপিং প্রচলিত নিকোটিন রিপ্লেসমেন্ট থেরাপি থেকে বেশি সহায়ক ।

দেশটির ক্যানসার রিসার্চ প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহি মিশেল মিচেল অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের গবেষণাকে সাধুবাদ জানিয়েছেন। কারণ, এটি ধূমপানে আসক্তি কাটাতে ভেপিংয়ের কার্যকারিতা আরও স্পষ্ট করে দিল।

(ঢাকাটাইমস/৩০নভেম্বর/এসকেএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

স্বাস্থ্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :