এখনো সময় আছে সেইফ এক্সজিট খুঁজেন: ডা. জাহিদ

নিজস্ব প্রতিবেদক, মৌলভীবাজার
 | প্রকাশিত : ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ২২:৪৯

বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন বলেছেন, নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র মানুষের নাগালের বাইরে। সরকার প্রতিনিয়ত দাম বাড়ায়। তাই দেশের মানুষ এই সরকারকে আর ক্ষমতায় দেখতে চায় না। দেশের মানুষ তাদের ভোটে সরকার নির্বাচিত করতে চায়।

তিনি সরকারকে উদ্দ্যেশ্যে করে বলেন, এখনও সময় আছে সেইফ এক্সজিট খুঁজেন। নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে জাতীয় নির্বাচন দিন।

তিনি বৃহস্পতিবার রাতে শহরের একটি কনভেনশন হলের কনফারেন্স রুমে মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির বিশেষ সভায় বক্তব্য রাখছিলেন। এতে সভাপতিত্ব করেন জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য এম নাসের রহমান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন আরও বলেন, দেশে আজ লুটের রাজত্ব কায়েম হয়েছে। ব্যাংক ঋণের নামে হাজার কোটি টাকা পাচার হয়ে যাচ্ছে। কাজেই দেশকে যদি রক্ষা করতে হয়। দেশের অর্থনীতিকে যদি রক্ষা করতে হয়। দেশের মানুকে যদি বাঁচাতে হয়। সর্বোপরি এদেশের মানুষের ভোটের অধিকার প্রকৃত গণতন্ত্র যদি ফিরিয়ে দিতে হয়, তাহলে এই ফ্যাসিস্ট আওয়ামী লীগ সরকারের বিদায় এবং নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে জাতীয় নির্বাচন ছাড়া কোন গতন্ত্যর নেই।

সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. সাখাওয়াত হাসান জীবন ও সহসাংগঠনিক সম্পাদক কলিম উদ্দিন মিলন।

জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজান ও সাংগঠনিক সম্পাদক বকসী মিছবাউর রহমানের সঞ্চালনায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন- জেলা বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি সাবেক মেয়র ফয়জুল করিম ময়ুন, শ্রীমঙ্গল পৌরসভার মেয়র জেলা বিএনপি নেতা মহসীন মিয়া মধু, সহসভাপতি নাসির উদ্দিন মিঠু, মৌলভী আব্দুল ওয়ালী সিদ্দিকী, হেলু মিয়া, এমএ মুকিত, মোয়াজ্জেম হোসেন মাতুক, আশিক মোশাররফ, ফয়সল আহমেদ, জেলা বিএনপির সিনিয়র সদস্য মোশারফ হোসেন বাদশা, জেলা আইনজীবী ফোরামের সভাপতি জেলা বিএনপির আইনবিষয়ক সম্পাদক মামুনুর রশীদ, জেলা কৃষক দলের আহবায়ক ও জেলা বিএনপির সহ-সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমেদ, জেলা বিএনপির যুব বিষয়ক সম্পাদক ও জেলা যুবদল সভাপতি জাকির হোসেন উজ্জ্বল, জেলা বিএনপির স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক ও জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি স্বাগত কিশোর দাশ, শ্রমবিষয়ক সম্পাদক ও জেলা শ্রমিক দলের সভাপতি রফিকুল ইসলাম রসিক, জেলা ওলামা দলের আহবায়ক ও জেলা বিএনপির ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা আব্দুল হেকিম, জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ও সহ-ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক আকিদুর রহমান সোহান, কমলগঞ্জ উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক গোলাম কিবরিয়া শফি, শ্রীমঙ্গল উপজেলা বিএনপির সভাপতি নূরে আলম সিদ্দীকি, কুলাউড়া পৌরসভার সাবেক বিএনপি নেতা মেয়র কামাল আহমেদ জুনেদ, রাজনগর উপজেলা বিএনপির সভাপতি জিতু মিয়া, বড়লেখা উপজেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল হাফিজ প্রমুখ।

এছাড়াও এ বিশেষ সভায় জেলা বিএনপির উপদেষ্টা সিনিয়র আইনজীবী বীরমুক্তিযোদ্ধা সুনীল কুমার দাশ সম্প্রতি বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ ঐক্য ফ্রন্টের কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি নির্বাচিত হওয়ায় জেলা বিএনপির পক্ষ থেকে অতিথিরা ফুলের তোড়া দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।

ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন আরও বলেন, আজকে জনগণের সাথে পুলিশ প্রশাসন আইন আদালতকে মুখোমুখি করা হচ্ছে। সেই দিন বেশি দূরে নয় যেদিন এই প্রশাসন এই পুলিশ এই আইন আদালত জনগণের পাশে আসবে। আজকে যারা শাসকদল আওয়ামী লীগ এক ঘরে হয়ে যাবে।

তিনি দলীয় নেতৃবৃন্দের প্রতি সকল বিভেদ ভুলে যাওয়ার আহবান জানিয়ে বলেন, আগামীতে দেশে গণতন্ত্র ও জনগণের ভোটাধিকার আদায়, নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকার পুনঃপ্রতিষ্ঠা,দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনার দাবিতে এই অবৈধ সরকার বিদায়ের একদফার আন্দোলন দ্বিতীয় দফায় ১০ ডিসেম্বরের পর থেকে শুরু হবে। কেন্দ্র ঘোষিত এসব এই আন্দোলনে জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করে সরকারের পতন তরান্বিত করতে হবে।

(ঢাকাটাইমস/০২ডিসেম্বর/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

রাজনীতি এর সর্বশেষ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :