ময়মনসিংহ মেডিকেলে এক সপ্তাহে ৯৬ শিশুর মৃত্যু

ময়মনসিংহ ব্যুরো, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ১৯:২৬ | প্রকাশিত : ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭:৫৬

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতালের গত এক সপ্তাহে ৯৬ শিশুর মৃত্যু হয়েছে। সেই সঙ্গে বেড়েছে রোগীর চাপ। এতে সেবা প্রদানে হিমশিম খাচ্ছে চিকিৎসক, নার্স ও কর্মচারীরা।

এর মধ্যে নবজাতক নিবিড় যত্ন ইউনিটে (এনআইসিইউ) ৭৪ এবং সাধারণ ওয়ার্ডে ২২ জন শিশুর মৃত্যু হয় বলে জানিয়েছেন হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল গোলাম কিবরিয়া।

রবিবার (৪ ডিসেম্বর) দুপুর ২টার দিকে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল গোলাম কিবরিয়া এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ জানায়, গত এক সপ্তাহে হাসপাতালের নবজাতক নিবিড় যত্ন ইউনিটে (এনআইসিইউ) মোট ১৩৫৩ জন শিশু রোগী ভর্তি হয়। এছাড়াও হাসপাতালের ৩০ এবং ৩১ নম্বর ওয়ার্ডে চিকিৎসা নিয়েছে মোট ২৮৭৭ শিশু।

তবে নবজাতক মৃত্যুর হার ঢাকা এবং সিলেটের তুলনায় গড় হিসেবে মমেক হাসপাতালে অনেকটাই কম বলে জানিয়েছেন এনআইসিইউর বিভাগীয় প্রধান ডা. নজরুল ইসলাম।

তিনি আরও জানান, মৃত্যুবরণকারী শিশুদের বেশির ভাগের জন্মগত সমস্যা ছিল। বাড়িতে এবং বেসরকারি হাসপাতাল বা ক্লিনিকে ডেলিভারি করার কারণে নবজাতকের এই সমস্যাটা বেশি হচ্ছে। তাছাড়া মৃত্যুবরণ করা শিশুদের মধ্যে শতকরা ৯০ থেকে ৯৫ শতাংশ বাইরে থেকে আসা বলেও জানান এই চিকিৎসক।

ডা. নজরুল ইসলাম জানান, হাসপাতালের ৫০ শয্যায় প্রতিদিন ২০০ থেকে ২৩০ নবজাতক ভর্তি থাকায় চিকিৎসা দিতেও হিমশিম খেতে হয়। সেই সঙ্গে জনবল ঘাটতি আরও বড় সমস্যা।

এ বিষয়ে মমেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল গোলাম কিবরিয়া বলেন, হাসপাতালের প্রতিটি ওয়ার্ডেই অতিরিক্ত রোগীর চাপ। তবুও আমরা চেষ্টা করছি সাধ্যের সর্ব্বোচ্চটুকু করতে।

সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম বলেন, সাধারণত শীত মৌসুমে সর্দি ঠাণ্ডা রোগ শিশুদের মধ‍্যে বেশি দেখা দেয়। তবে এবার নিউমোনিয়ার প্রকোপ খুব একটা নেই। এতে আতঙ্কিত হওয়ার মত কিছু নেই। তবে এসব বিষয়ে শিশুদের প্রতি যত্নশীল হতে হবে।

(ঢাকাটাইমস/৪ডিসেম্বর/এআর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :