না ফেরার দেশে মাইকেল জ্যাকসনের প্রাক্তন স্ত্রী লিসা

বিনোদন ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৩ জানুয়ারি ২০২৩, ১২:৪২

প্রয়াত মার্কিন পপস্টার মাইকেল জ্যাকসনের প্রাক্তন স্ত্রী গায়িকা লিসা মেরি প্রিসলি মারা গেছেন। লিসার আরও একটি বড় পরিচয়, তিনি ‘রক এন রোলের রাজা’ এলভিস প্রিসলির একমাত্র মেয়ে। বৃহস্পতিবার লস অ্যাঞ্জেলেসে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন লিসা। এ খবর জানিয়েছেন তার মা প্রিসিলা প্রিসলি।

প্রিসিলা এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, ‘ভারাক্রান্ত হৃদয়ের সঙ্গে আমাকে এই বেদনাদায়ক সংবাদটি শেয়ার করে নিতে হচ্ছে যে, আমার সুন্দরী মেয়ে লিসা মেরি আমাদের ছেড়ে চলে গেছে। আমার দেখা সবচেয়ে আবেগী, শক্তিশালী এবং ভালোবাসায় ভরা নারী ছিল লিসা। এই গভীর বেদনা সামলে ওঠার জন্য আপনাদের কাছ থেকে কিছু গোপনীয়তা প্রার্থনা করছি।’

মৃত্যুকালে গায়িকা লিসা মেরি প্রিসলির বয়স হয়েছিল ৫৪ বছর। ক্যালাবাসাসের লস অ্যাঞ্জেলেসের বাড়িতেই কার্ডিয়াক অ্যারেস্টের শিকার হন তিনি। তারপর তাকে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল হাসপাতালে। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি।

লিসা চলতি সপ্তাহেই বেভারলি হিলস-এ অনুষ্ঠিত গোল্ডেন গ্লোবস অ্যাওয়ার্ডে অংশগ্রহণ করেছিলেন। যেখানে অভিনেতা অস্টিন বাটলার ‘এলভিস’ ছবিতে তার বাবার চরিত্রে অভিনয় করার জন্য সেরা অভিনেতার পুরস্কার জিতেছিলেন। বাটলার সেখানে নিজের বক্তৃতায় লিসা ও তার মা প্রিসিলাকে ধন্যবাদও জানিয়েছিলেন।

১৯৬৮ সালের ১ ফেব্রুয়ারি মেমফিস, টেনেসিতে জন্মগ্রহণ করেন লিসা মেরি প্রিসলি। তার বয়স যখন মাত্র ৯ বছর, তখন বাবা এলভিস প্রিসলি মারা যান কার্ডিয়াক অ্যারেস্টেই। ২০০৩ সালে অ্যালবাম ‘টু হুম ইট মে কনসার্ন’ দিয়ে নিজের সঙ্গীত জীবন শুরু হয়েছিল লিসার।

এরপর ২০০৫ সালে এসেছিল ‘নাউ হোয়াট’। দুটিই বিলবোর্ড ২০০ অ্যালবাম চার্টের শীর্ষ ১০-এ নিজের জায়গা করে নিয়েছিল। তার তৃতীয় অ্যালবাম, ‘স্টর্ম অ্যান্ড গ্রেস’ ২০১২ সালে প্রকাশিত হয়।

লিসা চারবার বিয়ে করেছিলেন। পপ তারকা মাইকেল জ্যাকসনকে বিয়ে করেন ১৯৯৪ সালে, প্রথম স্বামী সংগীতশিল্পী ড্যানি কিফের সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদের মাত্র ২০ দিন পর। জ্যাকসনের সঙ্গে লিসার ডিভোর্স হয় ১৯৯৬ সালে, যখন জ্যাকসনের বিরুদ্ধে শিশু শ্লীলতাহানির অভিযোগ উঠেছিল।

লিসা ২০০২ সালে তার বাবার একজন বড় ভক্ত অভিনেতা নিকোলাস কেজকে বিয়ে করেন। চার মাস পরেই কেজ বিবাহ বিচ্ছেদের আবেদন করেন। চতুর্থ বিয়ে ছিল গিটারিস্ট এবং সংগীত প্রযোজক মাইকেল লকউডের সঙ্গে। যা ভেঙে যায় ২০২১ সালে।

লিসার চার সন্তান। একমাত্র ছেলে বেঞ্জামিন কেওফ একজন সঙ্গীতশিল্পী। ২০২০ সালে মাত্র ২৭ বছর বয়সে আত্মহত্যা করেন বেঞ্জামিন। মেয়ে রাইলি কিউর বয়স ৩৩, পেশায় একজন অভিনেত্রী। লিসার অন্য দুই মেয়ে যমজ, হার্পার এবং ফিনলে লকউড। তাদের বয়স ১৪।

(ঢাকাটাইমস/১৩জানুয়ারি/এজে)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিনোদন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

বিনোদন এর সর্বশেষ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :