গরম পানি খেলে দূর হয় মাইগ্রেনের ব্যথা! আরও কত রোগের যম জানুন

ঢাকা টাইমস ডেস্ক
 | প্রকাশিত : ১৯ জানুয়ারি ২০২৪, ০৮:৫৭

গরম পানি পান করার উপকারিতা নিয়ে একদল জাপানি চিকিৎসকের গবেষণায় উঠে এলো চমকপ্রদ তথ্য। গবেষণা বলছে, বেশ কিছু রোগ দূর করতে ১০০ শতাংশ কার্যকর গরম পানি। তার মধ্যে অন্যতম মাইগ্রেন। মাত্র তিন দিনে এই রোগ থেকে মুক্তি দেয় গরম পানি- এমনটাই দাবি করা হয়েছে গবেষণায়।

যেসব রোগ সারায় গরম পানি

১। মাইগ্রেন, ২। উচ্চ রক্তচাপ, ৩। লো ব্লাড প্রেসার, ৪। জয়েন্ট পেইন বা গাঁটে গাঁটে ব্যথা, ৫। অনিয়মিত হৃদস্পন্দন, ৬। মৃগী, ৭। হাই কোলেস্টেরল, ৮। কফ-কাশি, ৯। শারীরিক অস্বস্তি, ১০। অ্যাস্থমা, ১১। পার্টুসিস, ১২। শিরায় সমস্যা, ১৩। জরায়ু ও মূত্রথলিতে সমস্যা, ১৪। পাকস্থলীতে সমস্যা, ১৫। ক্ষুধামন্দা ১৬। চোখ-কান-গলায় সমস্যা, ১৭। মাথাব্যথা।

গরম পানি পান করার নিয়ম

গবেষণা বলছে, প্রতিদিন ঘুম থেকে উঠে খালি পেটে চার গ্লাস গরম পানি পান করতে হবে। তা না পারলে অন্তত দুই গ্লাস। গরম পানি পান করার ৪৫ মিনিটের মধ্যে অন্য কোনো কিছু খাওয়া যাবে না। সকাল ছাড়াও দিনের অন্যান্য সময়েও পান করা যাবে গরম পানি।

কতদিনে কোন রোগের নিরাময়?

বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, আপনি যদি নিয়মিত গরম পানি পান করতে পারেন তাহলে ৩০ দিনের মধ্যে ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে আসবে। ৩০ দিনে মিটবে হার্টের সমস্যা। পাকস্থলীর সমস্যা, ক্ষুধামন্দা, জরায়ু সংক্রান্ত রোগ, নাক-কান-গলার সমস্যা ভালো হবে মাত্র ১০ দিনে।

১৫ দিনের মধ্যে মিটবে পিরিয়ড সংক্রান্ত সমস্যা। তিন দিনের মধ্যে স্বস্তি মিলবে মাইগ্রেনের অসহ্য যন্ত্রণা থেকেও। এমনকি দীর্ঘমেয়াদি সূত্রে ৪ মাসে কোলেস্টেরল-অ্যাস্থমা, ৯ মাসে মৃগী-পক্ষাঘাত ও ক্যানসার রোগ নিরাময়েও মিলবে উপকার।

ঠান্ডা পানিতে বাড়ে হার্ট অ্যাটাক!

বিশেষজ্ঞরা সাবধানবাণী হিসেবে আরও বলছেন, ঠান্ডা পানি হার্টের চারটি শিরায় ব্লকেজ তৈরি করে। যার ফলে হার্ট অ্যাটাক হতে পারে। হার্ট অ্যাটাকের অন্যতম কারণই হচ্ছে ঠান্ডা পানীয়। তাই বিশেষ করে ফ্রিজের ঠান্ডা পানি পান থেকে বিরত থাকার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।

(ঢাকাটাইমস/১৯জানুয়ারি/এজে)

সংবাদটি শেয়ার করুন

ফিচার বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :