নগরকান্দায় সড়কের পাশে পৌরসভার বর্জ্য, পথচারীদের ভোগান্তি চরমে

প্রকাশ | ১৫ মার্চ ২০২৪, ১২:৫৩

সালথা-নগরকান্দা (ফরিদপুর) প্রতিনিধি, ঢাকা টাইমস

ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলা সদরের কলেজ রোডে বাসস্ট্যান্ডের সামনের সড়কের পাশে দীর্ঘদিন ধরে বর্জ্য ফেলে আসছে পৌরসভা। সেই বর্জ্য পচে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে পুরো এলাকায়। এতে দূষিত হচ্ছে পরিবেশ। ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন ওই সড়ক দিয়ে চলাচলকারী পথচারীরা। এ অবস্থা থেকে মুক্তি পেতে স্থানীয়রা একাধিকবার পৌর মেয়রের কাছে গিয়েও কোনো লাভ হয়নি। ফলে ক্ষোভ বিরাজ করছে স্থানীয়দের মাঝে। 

গত বছর সড়কের পাশে ময়লা-আবর্জনা ফেলার বিষয়টি নিয়ে গণমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশিত হলেও ওই বর্জ্য অপসারণের কোনো উদ্যোগ নেয়নি কেউ। 

জানা গেছে, ১৯৯৯ সালে ৭ দশমিক ৫৮ বর্গকিলোমিটার এলাকা নিয়ে নগরকান্দা পৌরসভা গঠন করা হয়। তৎকালীন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী জিল্লুর রহমান এ পৌরসভার ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। বর্তমানে প্রায় ৩১ হাজার মানুষ বসবাস করছে  এই পৌরসভায়।

সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, পৌরসভার দুই নম্বর ওয়ার্ডে নগরকান্দা-জয়বাংলা আঞ্চলিক সড়কের পাশে মালিকানাধীন জায়গায় ওই বর্জ্য ফেলা হচ্ছে।

স্থানীয়রা জানান, গত পাঁচ বছর ধরে প্রতিদিন সকালে পৌরসভার মাছবাজার, মাংসপট্টি, কাঁচাবাজার, পেঁয়াজের হাঁট ও বিভিন্ন আবাসিক ভবন থেকে আসা ময়লা-আবর্জনা তিনটি পিকআপ ভর্তি করে এনে ওই জায়গায় ফেলা হচ্ছে। অনেক সময় আগুন দিয়ে ওই আবর্জনা পোড়ানো হয়। 

বর্জ্যের দূর্গন্ধ থেকে বাঁচতে নাকে-মুখে কাপড় পেঁচিয়ে শিক্ষার্থীরা নগরকান্দা সরকারি মহাবিদ্যালয়ে যেতে হয়। এছাড়া ওই এলাকায় অনেকগুলো পরিবারও বসবাস করছে। বর্জ্যের দুর্গন্ধে তারাও অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছেন। কিন্তু বর্জ্য অপসারণ বা লোকালয় থেকে দূরে কোথায় বর্জ্য ফেলার ব্যবস্থা করছে না পৌরসভা। 

নগরকান্দা সরকারি মহাবিদ্যালয়ের ডিগ্রি প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী তানভির আহাম্মেদ বলেন, প্রতিদিন বর্জ্য স্তুপের পাশ দিয়ে পায়ে হেঁটে বা ভ্যানে করে কলেজে যাওয়া-আসা করে থাকি আমরা। বর্জ্য স্তুপের এখানে এমনিতে দুর্গন্ধ থাকে। তারপর আবার মাঝে মাঝে আগুন জ্বালিয়ে এসব আবর্জনা পোড়ানো হয়। এতে দুর্গন্ধের পাশাপাশি আগুনের ধোয়ায় চারিদিক আচ্ছন্ন হয়ে পড়ে। যে কারণে এখান দিয়ে কলেজে যেতে আমাদের অনেক কষ্ট হয়। অনেক শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়েছে বলেও জানান তিনি।

ওই সড়ক দিয়ে প্রতিদিন যাতায়াত করেন বেলায়েত হোসেন নামে এক ব্যবসায়ী ও সংবাদকর্মী। তিনি বলেন, সড়কের পাশে মালিকানাধীন ওই জায়গায় পৌরসভার সকল ময়লা-আবর্জনা ফেলা হচ্ছে। সেই বর্জ্যের গন্ধ মানুষের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও বাড়িঘরেও ছড়িয়ে পড়ছে। এতে চরম ভোগান্তিতে রয়েছেন স্থানীয়রা।

বেলায়েত হোসেন আরও বলেন, ওই জায়গায় আবর্জনা ফেলা বন্ধ করতে কার্যকর ভূমিকা নিতে একাধিকবার মেয়রের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলেও কোনো লাভ হয়নি। পৌর মেয়র শুধু আশ্বাস দেন, কাজের কাজ কিছুই করেন না।

এই বিষয় নগরকান্দা পৌরসভার মেয়র নিমাই চন্দ্র সরকার বলেন, সড়কের পাশে বর্জ্য ফেলার বিষয়টি আমি জানি। আমাদের পৌরসভাটি ছোট। আর্থিক সংগতিও কম। তাই সমস্যাগুলি সমাধান করতে বেগ পেতে হচ্ছে। তবে যত দ্রুত সম্ভব আমরা ওখান থেকে অন্যত্র আবর্জনা ফেলার উদ্যোগ নেব।

নগরকান্দা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. কাফি বিন কবির বলেন, আমি এ উপজেলায় নতুন এসেছি। বিষয়টি আমার জানা নেই। তবে খোঁজ খবর নিয়ে অবশ্যই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। জনসাধারণের দুর্ভোগ লাঘবে প্রয়োজনে পৌরসভার মধ্যে মোড়ে মোড়ে অস্থায়ী ডাস্টবিন বসানো হবে। তাছাড়া বর্জ্য ফেলার জন্য ফাঁকা এলাকায় একটি জায়গা নির্ধারণের জন্য চেষ্টা করব।

(ঢাকাটাইমস/১৫মার্চ/প্রতিনিধি/পিএস)