রাত থেকে ভোর পর্যন্ত মোবাইল টাওয়ার নিষ্ক্রিয় প্রস্তাব প্রাণ গোপাল এমপির

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ২২ জুন ২০২৪, ২৩:৫৫

গ্রামীণ অঞ্চলে রাত ১০টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত মোবাইল টাওয়ার নিষ্ক্রিয় রাখতে সংসদে প্রস্তাব করেছেন সরকারদলীয় সংসদ সদস্য ডা. প্রাণ গোপাল দত্ত। শনিবার জাতীয় সংসদে বাজেটের ওপর আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এ প্রস্তাব করেন।

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী সংসদ অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন।

বিএসএমএমইউয়ের সাবেক এই উপাচার্য বলেন, ‘একজন চিকিৎসক হিসেবে আমি সবসময় প্রযুক্তির পক্ষে। আমি ডিজিটাল বাংলাদেশের পক্ষে, স্মার্ট বাংলাদেশের পক্ষে। কিন্তু আমাদের ডিজিটাল পদ্ধতি অর্থাৎ যেভাবে মোবাইল ফোনের অপব্যবহার হচ্ছে, আমার মনে হয় না আর বেশি দিন আমাদের এই প্রজন্ম প্রতিবন্ধী না হয়ে থাকতে পারবে। বিল গেটস নিজে বলেছেন— উনি ওনার সন্তানকে ১৬ বছরের আগে মোবাইল ফোন স্পর্শ করতে দেননি।’

মোবাইল আবিষ্কারকের কথা তুলে ধরে প্রাণ গোপাল দত্ত এমপি বলেন, ‘মার্টিন কুপার এক বছর আগে বলেন— আমি যদি জানতাম যে একজন ব্যক্তি, এই প্রজন্ম মোবাইল ফোনের সঙ্গে ৫-৬ ঘণ্টা আঠার মতো লেগে থাকবে, তাহলে এটা আবিষ্কার করা আমার জন্য একটা নির্মম ভুল হয়েছে বলে আমি মনে করি। একই সঙ্গে বুকার প্রাইজ উইনার হাওয়ার্ড জ্যাকবসন বলেছেন— আগামী ২০ বছর পরে বিশ্বের জনসংখ্যা লেখাপড়ায় প্রতিবন্ধী হয়ে যাবে, তারা প্রযুক্তি চালাতে পারবে কিন্তু কম্পোজিশন করতে পারবে না, কোনো কিছু শিখতে পারবে না। সুতরাং কোনোভাবে মোবাইলের কোনো একটা অ্যাপ তৈরি করে রাত ১০টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত প্রত্যন্ত গ্রামীণ অঞ্চলে মোবাইল টাওয়ারগুলো নিষ্ক্রিয় করা যায় কি না অথবা সেই মোবাইল টাওয়ার যাতে ব্যবহৃত না হয় মানে ফ্রিল্যান্সিং বা অন্যান্য বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের বিকল্প পথ ছাড়া অন্য কোথাও যেন ব্যবহৃত না হয় সেই ক্ষেত্রে আমাদের নজর দেওয়া উচিত।’

প্রাণ গোপাল আরও বলেন, ‘আমার রোগীর সংখ্যা যেভাবে হু হু করে বেড়ে যাচ্ছে, ১০ বছর থেকে শুরু করে সবারই একটা কথা কানে শো শো করে, ভু ভু করে, কানে শুনি না, লেখাপড়ায় মন দিতে পারি না। তাহলে আমরা কোথায় চলে যাচ্ছি।’

এই জায়গা থেকে কোনো কিছু একটা আবিষ্কার করা উচিত যেন রাত ১০টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত এই প্রযুক্তি থেকে আমাদের তরুণ সমাজ একটু দূরে থাকে— বলেন এই চিকিৎসক এমপি।

কুমিল্লা-৭ আসনের এই এমপি আরও বলেন, ‘শিক্ষার বিষয়ে ১০০ বছরের কথা চিন্তার কোনো বিকল্প নেই। এই শিক্ষা পেতে হলে দরকার একটা সুস্থ জাতি। সেই জাতির জন্য প্রয়োজন মেডিকেশন। আমাদের এই স্বাস্থ্যব্যবস্থা নিয়ে অনেকেই অনেক সমালোচনা করেন। তারপরও কিন্তু বাংলাদেশের স্বাস্থ্যসেবা যে খুব কম উন্নতি লাভ করেছে তা আমি স্বীকার করবো না। বাংলাদেশের স্বাস্থ্যসেবা এখন অনেকটাই উন্নতির পর্যায়ে।’

(ঢাকাটাইমস/২২জুন/এসআইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

জাতীয় এর সর্বশেষ

কোটা সংস্কার আন্দোলনে হতাহতদের বিস্তারিত তথ্য প্রকাশের আহ্বান জাতিসংঘের

ভুল বার্তায় বিদেশি বিনিয়োগকারীদের কাছে দেশের ইমেজ ক্ষতিগ্রস্ত করা হয়েছে: সালমান এফ রহমান

হেলিকপ্টার দিয়ে গুলি নয়, উদ্ধার কার্যক্রম চালানো হয়েছে: র‍্যাব

উপজেলা নির্বাচনের অভিযোগ নিষ্পত্তিতে ৬৪ জেলায় ট্রাইব্যুনাল গঠন

সাত দিনে ক্ষতি ২২ কোটি, এখনো ট্রেন চলাচলের পরিস্থিতি হয়নি: রেলমন্ত্রী

হতবাক হয়েছি বাঙালিরা কীভাবে এই ধ্বংসাত্মক কর্মকাণ্ড করতে পারে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

বাংলাদেশের জন্য উন্নয়ন সহায়তা ৪০ শতাংশ কমালো ভারত

শাফিন আহমেদের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক

ভাষাবিজ্ঞানী ড. মাহবুবুল হক আর নেই

ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত হয়নি এখনো: রেলওয়ে মহাপরিচালক

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :