যুক্তরাষ্ট্রে কৃষ্ণাঙ্গ সেনা কর্মকর্তাকে পুলিশের হেনস্তা, মামলা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
| আপডেট : ১২ এপ্রিল ২০২১, ১১:২৩ | প্রকাশিত : ১২ এপ্রিল ২০২১, ১১:১২

হামলা, অবৈধ তল্লাশি ও আটকের কারণে সাংবিধানিক অধিকার ক্ষুণ্ণ হয়েছে অভিযোগ করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দুই পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন কৃষ্ণাঙ্গ সেনা কর্মকর্তা কারোন নাজারিও। খবর বিবিসির

মার্কিন সেনাবাহিনীর কৃষ্ণাঙ্গ লেফটেন্যান্ট কারোনা নাজারিওকে হেনস্থার ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। সেখানে দেখা গেছে, গাড়ি থামানোর সময় এই দুই পুলিশ তার দিকে বন্দুক তাক করেছে ও পেপার স্প্রে ছুড়েছে।

গত ডিসেম্বরে ভার্জিনিয়ায় এমন ঘটনা ঘটেছে। বডিক্যামেরার ভিডিওফুটেজের সময় সেনাবাহিনীর সেকেন্ড লেফটেন্যান্ট কারোন নাজারিও তার উর্দি পরছিলেন। দুই পুলিশ কর্মকর্তা গাড়ি থামিয়ে তাকে বের হয়ে আসতে বললে তিনি বলেন, ‘সত্যিকার অর্থে আমি বের হতে ভয় পাচ্ছি।’ জবাবে এক পুলিশ জানায়, ‘আপনি বেরিয়ে আসেন।’

পুলিশের অভিযোগ, তার গাড়ির লাইসেন্স প্লেট দেখা না যাওয়ার কারণে গাড়ি থামানো হয়েছে। কিন্তু ভিডিওতে তার টেমপোরারি প্লেট দেখা যাচ্ছিল।

এসময় তাকে হাতকড়া পরিয়ে তার গাড়িতে তল্লাশি চালানো হয়। কেন তার বিরুদ্ধে বলপ্রয়োগ করা হচ্ছে জানতে চাইলে এক পুলিশ বলেন, আপনি সহযোগিতা করছেন না। পরবর্তী সময়ে কোনো অভিযোগ ছাড়াই তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

ভার্জিনিয়ার নরফোকে মার্কিন ডিস্ট্রিক্ট আদালতে মামলাটি হয়েছে। আসামি করা হয়েছে উইন্ডসর পুলিশ বিভাগের কর্মকর্তা জো গুটেরেজ ও ডেনিয়াল ক্রোকারকে। এ ঘটনায় উইন্ডসর পুলিশ বিভাগের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

সম্প্রতি শেতাঙ্গ পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে কৃষ্ণাঙ্গদের হেনস্থা করার গুরুতর অভিযোগ ওঠে। জর্জ ফ্লয়েড নামের এক কৃষ্ণাঙ্গ শেতাঙ্গ পুলিশের হাতে নিহতের পর বিশ্বজুড়ে বর্ণবাদবিরোধী প্রতিবাদ ওঠে। এরপরই যুক্তরাষ্ট্রে সংখ্যালঘুদের ওপর পুলিশের নৃশংসতা ও বর্ণবাদী আচরণের ওপর পর্যবেক্ষণ বাড়ানো হয়েছে।

ঢাকাটাইমস/১২এপ্রিল/একে

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :