লিগ্যাল এইডের সেবা

আরাফাত বিন আবু তাহের
 | প্রকাশিত : ২৭ এপ্রিল ২০১৯, ২১:১৫

ক্ষেতের আলে নাড়ছে মাথা মিহি দুর্বা ঘাস

কৃষক দেখছে বারো মাস!

আশা ছিল ভরবে গোলা সিজন হলে শেষ

দেখে ফকিরের এক বেশ।

খরা ছিল আধেক বছর- ঘুমিয়েছিলো মালি

ফলে গোলা এখন খালি।

শূন্য উদর ঘুরে মাথা দুঃখের নেই রে শেষ

দেখে এ কী আজব দেশ!

পেছন বাড়ির রহিম মিয়া এবং কলুর দল

কথা যেন পঙ্গ পালের মল।

যেমন বকে তেমন ছকে মামলা করে হালি

দেখায় সে দুঃখের পাঁচালি!

কোর্টে চলে মামলা হরেক ঘরে পাতিল নাই

মজুর করে হায় রে হায়।

সমন এলে আদালতের আদেশ বলে গিয়া

এখন কোর্টে চলো মিয়া।

ছেঁড়া পকেট শূন্য বুকে বাতাস নাড়ে হাঁড়

মাথায় থাকে না তার ঘাড়।

হঠাৎ মিয়া খবর পেলো আদালতের দিনে

মামলা চলবে খরচ বিনে!

এমন চাষি বানবাসী খরার দেশের লোক

সবার কেটে যাবে শোক।

গরিব দুঃখী সোজাসুজি আদালতে এখন

এসে মামলা পাবে যখন।

একটু যেচে চেয়ে পাবে অফিস- অফিসার

খরচ দিতে বাধ্য- সরকার।

নেই ঝামেলা বেখরচা সহজ লিগ্যাল এইড

যেন সেবাটা হোম মেইড।

কৃষক শ্রমিক চাষা ভুষা গরিব এবং দুঃখী

এখন লিগ্যাল এইডে সুখী।

স্বাধীন দেশে গরিব যে সে নয় রে অসহায়

এটাই লিগ্যালএইডের দোহাই।

সংবাদটি শেয়ার করুন

সাহিত্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :