ঘাটাইলে ব্যবসায়ীর হাত-পায়ের রগ কেটে সর্বস্ব লুট

ঘাটাইল (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ১৮:২৭

টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে দুর্বৃত্তরা নেশা খাইয়ে ও হাত-পায়ের রগ কেটে জুলহাস (২৮) নামে এক ব্যবসায়ীর সর্বস্ব লুটে নিয়েছে।

শুক্রবার গভীর রাতে ঘাটাইল উপজেলার দিঘর ইউনিয়নের ছামনা মধ্যপাড়া হাজিবাড়িতে এই ঘটনা ঘটেছে।

ভুক্তভোগী জুলহাস (২৮) উপজেলার দিঘর ইউনিয়নের ছামনা মধ্যপাড়ার (হাজিবাড়ির) মৃত নিজাম উদ্দিনের ছেলে।

বাড়ির লোকজন গুরুতর আহত জুলহাসকে অচেতন অবস্থায় টাঙ্গাইল শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেছে।

জুলহাসের পরিবার সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার দুপুরে জুলহাস তার স্ত্রীকে নিয়ে শ্বশুরবাড়িতে দাওয়াত খেতে যায়। দুপুরের খাবার খেয়ে স্ত্রীকে রেখে বিকালেই দোকানে চলে আসে। বাড়ির পাশেই মাটিকাটা বাজারে তার মনোহারী দোকান। মনোহারীর পাশাপাশি বিকাশ ফ্লেক্সিলোডের ব্যবসাও করেন তিনি।

শুক্রবার রাত ১০টায় দোকান বন্ধকরে বাড়িতে আসেন। পরে মায়ের সাথে রাতের খাবার খেয়ে একাই নিজের ঘরে ঘুমাতে যান।

শনিবার সকালে জুলহাসকে না দেখে তার মা জুসনা বেগম জুলহাসের ঘরে ডাকতে যান। সময় ঘরের দরজা খোলা দেখে ভিতরে প্রবেশ করে দেখেন জুলহাস রক্তাক্ত অচেতন অবস্থায় বিছানায় পড়ে আছে। দৃশ্য দেখে তিনি চিৎকার দিলে পরিবারের লোকজন এসে জুলহাসকে উদ্ধার করে টাঙ্গাইল শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি নিয়ে যান।

জুলহাসের ছোট ভাই জহুরুল জানান, ‘হামলাকারীরা আমার ভাইকে নেশা খাওয়াইয়া ডান পা বাম হাতের রগ কেটে দেয় এবং গলায় শরীরে জখম করে। সময় তার বিকাশের মোবাইল সঙ্গে থাকা নগদ টাকা নিয়ে গেছে। আমার ভাই এখনো অচেতন অবস্থায় টাঙ্গাইল হাসপাতালে রয়েছে।

বিষয়ে দিঘর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ মামুন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এই বিষয়ে পুলিশ প্রশাসনের কাছে ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত হামলাকারীদের দ্রুত গ্রেপ্তার দাবি করছি।

ঘাটাইল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. বিল্লাল হোসেন জানান, খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি, তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

(ঢাকাটাইমস/১৩এপ্রিল/পিএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

সারাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :