চট্টগ্রামে হঠাৎ বিদ্যুৎ পরিস্থিতির উন্নতি

চট্টগ্রাম ব্যুরো প্রধান, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৬ মে ২০১৭, ২১:২৫ | প্রকাশিত : ২৬ মে ২০১৭, ১৪:১৩

আজ শুক্রবার সকাল ১০টা থেকে চট্টগ্রামে হঠাৎ বিদ্যুৎ পরিস্থিতির ব্যাপক উন্নতি হয়েছে। গত ১১-১২দিন ধরে যেখানে বিদ্যুৎ লোডশেডিংয়ের যন্ত্রণায় চট্টগ্রামবাসী অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছিলেন; সেখানে আজ এতো উন্নতি দেখে বিস্মিতও হচ্ছেন তারা।

তবে বিদ্যুতের এই উন্নতির রহস্য জানতে বেশি সময় লাগেনি চট্টগ্রামবাসীর। ঢাকাটাইমসহ বেশ কিছু অনলাইন নিউজ পোর্টালের সুবাদে তারা জেনে গেছেন চট্টগ্রামে জ্বালানি ও বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপুর উপস্থিতির কথা।

আজ শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে তিনি বিমানযোগে চট্টগ্রামে আসেন। পা দিয়ে প্রথমেই তিনি বিদ্যুতের উন্নতির কথা বলেন।

তিনি বলেন, শুধু চট্টগ্রামে নয়, সারাদেশে আজ থেকে বিদ্যুতের লোডশেডিং সহনীয় পর্যায়ে এসেছে। পর্যায়ক্রমে এ পরিস্থিতির আরো উন্নতি হবে। অথচ ভোর পাঁচটা থেকে ১০টার আগ মুহূর্ত পর্যন্তও বিদ্যুৎ ছিল না চট্টগ্রামে।

বিস্ময়ের ব্যাপার এই যে, চট্টগ্রামে গ্যাসের অভাবে বন্ধ থাকা তিনটি সরকারি বিদ্যুৎ কেন্দ্রের একটিও চালু হয়নি। মাটি গজেও উৎপাদন বাড়েনি বিদ্যুতের। তবুও বিদ্যুৎ লোডশেডিং কমে এতো উন্নতি হলো কি করে-এমন প্রশ্নের জবাবে বিদ্যুৎ উন্নয়ত বোর্ড (পিডিবি) চট্টগ্রামের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান ঢাকাটাইমসকে বলেন, জাতীয় গ্রিড থেকে বিদ্যুত সরবরাহ বাড়ায় চট্টগ্রামে বিদ্যুৎ পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছে।

তিনি বলেন, বিদ্যুতের চাহিদা ও ঘাটতি আগে যেমন ছিল তেমনিই আছে। বন্ধ বিদ্যুতকেন্দ্রগুলোও চালু হয়নি। কিন্তু জাতীয় গ্রিড থেকে সরবরাহ বাড়ায় ঘাটতি কিছুটা কমেছে।     

আর জাতীয় গ্রিড থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহ কতক্ষণের জন্য, না কি মন্ত্রী চট্টগ্রাম ত্যাগ করার পর সরবরাহ থাকবে না এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, না তেমনটা সম্ভবনা নেই। তবে বিদ্যুৎ বলে কথা। কখন কি হয় বলা যায় না। জাতীয় গ্রিডে বিপর্যয় দেখা দিলে এমনটা তো হতেই পারে।

প্রসঙ্গত, গরমের তীব্রতা বাড়ার সাথে সাথে গত ১১-১২ দিন ধরে চট্টগ্রাম চলছে নজীরবিহীন বিদ্যুৎ লোডশেডিং। লোডশেডিংয়ের কারণে এ সময়ে চট্টগ্রামে সারাদিনে তিন ঘণ্টা বিদ্যুৎও পাওয়া যায়নি। বিদ্যুৎ আসলে দুই থেকে পাঁচ বা ১০ মিনিট স্থায়ী হত। গেলে ৩ থেকে ৫ বা ৮ ঘণ্টায়ও বিদ্যুৎ আসতো না। ২০০৩ থেকে ২০০৬ সালে ক্রমান্বয়ে বিদ্যুতের এমন পরিস্থিতি চোখে দেখেছে চট্টগ্রাম নগরবাসী।

কিন্তু আজ শুক্রবার সকাল থেকে দুপুর ১২টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত একবারের জন্যও বিদ্যুৎ চট্টগ্রাম ছেড়ে যায়নি। এর আগে বিদ্যুতের ভয়াবহ পরিস্থিতি দেখতে জ্বালানি ও বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু আজ শুক্রবার সকালে চট্টগ্রামে আসেন।

(ঢাকাটাইমস/২৬মে/আইকে/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত