নিউজিল্যান্ড সফরের প্রস্তুতি নিয়ে চিন্তিত রোডস

ক্রীড়া প্রতিবেদক
| আপডেট : ১৮ জানুয়ারি ২০১৯, ১৬:৩৪ | প্রকাশিত : ১৮ জানুয়ারি ২০১৯, ১৬:৩০

বিপিএল শেষেই নিউজিল্যান্ড সফরে উড়াল দিবে বাংলাদেশ জাতীয় দল। যার কারণে নিউজিল্যান্ড সফরের প্রস্তুতি হিসেবে বিপিএলকেই মানা হচ্ছে। ফরম্যাট ভিন্ন হলেও ক্রিকেটারদের খেলার রিদমে রাখার মঞ্চ হিসেবে নেওয়া হয়েছে টুর্নামেন্টটিকে। ইতিমধ্যে শিষ্যদের পারফর্ম বিপিএল দেখতে ছুটির সময়ও বাংলাদেশে এসেছেন কোচ স্টিভ রোডস। কিন্তু এমন উইকেটে খেলা দেখে নিউজিল্যান্ড সফরের প্রস্তুতি নিয়ে বেশ চিন্তিত হয়ে পড়ছেন এই ইংলিশ কোচ। 
বিপিএলের ফাইনাল ৮ ফেব্রুয়ারি। ফাইনাল ম্যাচে সফরে ডাক পাওয়া যে ক্রিকেটাররা থাকবেন না তাদের নিয়ে  নিউজিল্যান্ডের উদ্দেশে আগামী ৭ ফেব্রুয়ারি দেশ ছাড়ার কথা টাইগারদের। সফরে স্বাগতিকদের বিপক্ষে তিনটি একদিনের ম্যাচ এবং তিনটি টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ। আগামী ১৩ ফেব্রুয়ারি নেপিয়ারে হবে প্রথম ওয়ানডে। সবকিছু মিলিয়ে সফরের আগে অনুশীলনের জন্য একটু সময়ও নেই বাংলাদেশের।  
বাস্তবতা মেনে নিয়ে বাংলাদেশ কোচ রোডস বলেন,‘আমরা এই বাস্তবতা বুঝি। যারা ওয়ানডে দলে থাকবে, এটার সঙ্গে মানিয়ে নিতে হবে। আমরা জানি, ওয়ানডে সিরিজের জন্য আমাদের প্রস্তুতিতে খুব তাড়াহুড়ো থাকবে। কিন্তু আমাদের সর্বোচ্চ চেষ্টা করতে হবে এবং যে ম্যাচই আসুক, জয়ের চেষ্টা করতে হবে। টেস্ট যারা খেলবে, ওরা একটু সময় পাবে মানিয়ে নেওয়ার। আশা করি ওদের সমস্যা হবে না।’
তবে বিপিএল যে নিউজিল্যান্ড সফরের প্রস্তুতির ধারে কাছেও নেই সেটা কোচের মুখে স্পষ্ট। বিপিএলে বেশির ভাগ ম্যাচই হচ্ছে মন্থর উইকেটে। যেটা নিউজিল্যান্ডের উইকেটের উল্টো। সবমিলিয়ে সংবাদ সম্মেলনে নিজের চিন্তা আড়াল করতে পারলেন না টাইগার কোচ। তিনি বলেন,‘আমরা যে এরকম উইকেটে খেলে যাচ্ছি, নিউ জিল্যান্ড যেন না জানে! (হাসি)। সত্যি বলতে, বিপিএল খেলেই সরাসরি নিউজিল্যান্ডে ওয়ানডে খেলতে যাওয়া আদর্শ প্রস্তুতির ধারে কাছেও নয়। কিন্তু এ নিয়ে আমাদের কিছুই করার নেই! বিপিএল একটি দারুণ টুর্নামেন্ট। কোনো একটি সময়ে আয়োজন করতেই হতো। এই সময় করা ছাড়া চলতি বছর আর কোনো উপায় ছিল না।’
কিউই সফরের আগে সময় খুব না থাকলেও ওয়ানডে সিরিজটা খারাপ হবে না বলে মনে করেন বাংলাদেশ কোচ। একদিনের ক্রিকেটে ছন্দশীল বাংলাদেশ নিউজিল্যান্ডেও সঠিক পথে থাকবে বলে মনে করেন তিনি। তার কথায়,‘নিউজিল্যান্ডে জেতা অনেক কঠিন হবে অবশ্যই। তবে যদি আমরা ভালো কিছু ফলাফল বের করে আনতে পারি। আশাকরি ওয়ানডেতে আমরা সঠিক পথেই থাকব।’
নিউজিল্যান্ড সফরের প্রস্তুতি নিয়ে চিন্তিত হলেও বিশ^কাপের প্রস্তুতি নিয়ে চিন্তিত নন রোডস। বিশ^কাপের আগে মে মাসের প্রথম সপ্তাহে আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্টে অংশ নেবে বাংলাদেশ। যেখানে বাংলাদেশ-আয়ারল্যান্ড ছাড়াও আছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। বিশ^কাপের প্রস্তুতির জন্য আয়ারল্যান্ড সফরকে আদর্শ মানছেন ইংলিশ এই কোচ। 
বিশ^কাপের প্রস্তুতি খারাপ হবে না উল্লেখ করে রোডস বলেন,‘আয়ারল্যান্ড সফর আমাদের জন্য ভালো প্রস্তুতি হবে। দেশ ছাড়ার আগে মিরপুরে আমাদের ছোট্ট একটি ক্যাম্প হবে। তার পর আয়ারল্যান্ডে গিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও স্বাগতিকদের সঙ্গে খেলে ভালো অভিজ্ঞতা হবে। ওখানকার ঠান্ডা ও ভেজা আবহাওয়ায় মানিয়ে নিতে হবে। বিশ্বকাপের জন্য ইংল্যান্ডে যেতে যেতে উইকেটগুলো শুষ্ক হতে শুরু করবে। আশা করি, দল তখন জয়ের একটা ধারাবাহিকতায়  থাকবে।’
১৩ ফেব্রুয়ারি নেপিয়ারে শুরু হবে কিউইদের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ। পরের দুই ম্যাচ ১৬ ও ২০ ফেব্রুয়ারি ক্রাইস্টচার্চ ও ডানেডিনে। হ্যামিল্টনে প্রথম টেস্ট শুরু হবে ২৮ ফেব্রুয়ারি। ৮ মার্চ ওয়েলিংটনে হবে দ্বিতীয় টেস্ট। আর ক্রাইস্টচার্চে শেষ টেস্ট হবে ১৬ মার্চ থেকে।

(ঢাকাটাইমস/১৭জানুয়ারি/এইচএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :