দেড় মাসেই থানার চিত্র পাল্টে দিলেন ওসি

শায়লা পারভীন, তাড়াশ (সিরাজগঞ্জ)
| আপডেট : ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১৬:৪৭ | প্রকাশিত : ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১৬:২৩

যোগদানের মাত্র দেড় মাসেই থানার চিত্র পাল্টে দিলেন সিরাজগঞ্জের তাড়াশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফজলে আশিক। যোগদানের পর থেকে থানার আইন-শৃঙ্খলা পরিবেশ দেখভালের পাশাপাশি সহকর্মী পুলিশ সদস্যদের জন্য তিনি কাজ করে যাচ্ছেন নিরলসভাবে। দায়িত্ব নিয়েই থানার সব পুলিশ সদস্যদের সমানভাবে দায়িত্ববণ্টন করে দিয়েছেন তিনি।

সিরাজগঞ্জের তাড়াশ থানায় ওসি হিসেবে দেড়মাস আগে যোগ দেন ফজলে আশিক। যোগদানের পর থেকে গত নভেম্বর মাসেই বিভিন্ন মামলার ৪৭ জন আসামি গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে পাঠিয়েছেন। গ্রেপ্তারদের মধ্যে পলাতক সাজাপ্রাপ্ত, গ্রেপ্তারি পরোয়নাভুক্ত ও নিয়মিত মামলার আসামি রয়েছে। এর মধ্যে দুজন মাদক মামলার আসামিকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে সাজা দেয়া হয়।

এছাড়া একমাসে ৮২টি গ্রেপ্তারি পরোয়ানা নিষ্পত্তি হয়েছে। ওসি দক্ষতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করায় সব পুলিশ অফিসারের আচার-আচরণও পাল্টে গেছে। তাড়াশ থানায় প্রয়োজনে আসা সব শ্রেণির মানুষকে টাকা-পয়সা ছাড়াই মামলা ও অভিযোগ গ্রহণ করেন ওসি। সেই সঙ্গে তিনি সবাইকে চা-বিস্কুট দিয়ে আপ্যায়ন করান।

থানায় আসা সেবা প্রত্যাশী জান মাহমুদ বলেন, নতুন ওসি আসার পর আমরা শান্তিতে আছি। সাধারণ মানুষ টাকা-পয়সা ছাড়া পুলিশের কাছ থেকে ভালো সেবা পাচ্ছেন, এজন্য আমরা সন্তুষ্ট।

তাড়াশ সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বাবুল শেখ জানান, বর্তমান ওসি সাহেব খুব সাহসিকতা ও দক্ষতার সঙ্গে এলাকায় চোর, ডাকাত, মাদক কারবারিদের আটকসহ সাধারণ মানুষকে সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। এজন্য আমরা অনেক খুশি।

ওসি ফজলে আশিক বলেন, বিপদে না পড়লে থানায় কেউ বেড়াতে আসেন না। আমি এই থানায় যোগদানের পর থেকে টাকা-পয়সা ছাড়াই মামলা ও অভিযোগ নিয়ে সবাইকে সেবা দিচ্ছি। পুলিশই জনতা, জনতাই পুলিশ। কর্মকর্তারা সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করলে পুলিশ ও সাধারণ মানুষের মধ্যে দূরত্ব কমে আসবে বলে মনে করেন তিনি।

(ঢাকাটাইমস/৪ডিসেম্বর/কেএম)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :