১৫৭ শিক্ষার্থীর দুই শিক্ষক

সাখাওয়াত হোসেন হৃদয়, পাকুন্দিয়া (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি
 | প্রকাশিত : ০৭ মার্চ ২০১৭, ১৭:৩০

কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলার ৬৪নং কুমরী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী সংখ্যা ১৬২জন। এর বিপরীতে শিক্ষক মাত্র দুইজন। তাদের মধ্যে একজন প্রেষণে এই বিদ্যালয়ে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পালন করছেন। তিনিও বদলি হয়ে অন্যত্র চলে যাওয়ার জন্য চেষ্টা করছেন। ফলে একজন শিক্ষক দিয়ে চলছে শিক্ষা কার্যক্রম। বিদ্যালয়টিতে শিক্ষক সংকটে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের পাঠদান মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বিদ্যালয়টিতে পাঁচজন শিক্ষকের মধ্যে নজরুল ইসলাম নামে একজন শিক্ষক দীর্ঘ চার বছর ধরে অনুপস্থিত। বর্তমানে তিনি ঢাকার একটি প্রাইভেট কোম্পানিতে চাকরি করছেন বলে জানা গেছে। এছাড়া দুইটি পদ শূন্য। পাঁচজন শিক্ষকের মধ্যে বর্তমানে রয়েছেন দুইজন। তাঁদের মধ্যে একজন গত সাড়ে তিন বছর ধরে প্রেষণে এখানে পাঠদান করানোর পাশাপাশি ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পালন করছেন।

স্থানীয়রা জানান, শিক্ষক স্বল্পতার কারণে বিপাকে পড়েছে শিক্ষার্থীরা। শিক্ষক স্বল্পতায় ক্লাস না হওয়ায় শিক্ষার্থীরা নিয়মিত স্কুলে আসছে না। এরইমধ্যে অনেক শিক্ষার্থী লেখাপড়া বন্ধ করে দিয়েছে। আশপাশে অন্য কোনো স্কুল না থাকায় বাধ্য হয়ে এখানেই ছেলেমেয়েকে পড়তে হচ্ছে।

বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা আজিজুন নাহার বলেন, দুইজন শিক্ষককে পাঁচজন শিক্ষকের দায়িত্ব পালন করতে হচ্ছে। এতে ঠিক মতো ক্লাস নেওয়া কঠিন হয়ে পড়েছে। এতে শিক্ষার্থীদেরও সমস্যা হচ্ছে। আমরা তাদের ঠিকমতো পাঠদান দিতে পারছি না। 

ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক  আবুল কাশেম মুহাম্মদ উল্লাহ জানান, তিনি প্রেষণে এই বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা ও ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পালন করে আসছেন। উপজেলা সদরে তার বাসা হওয়ায় দীর্ঘ সাত-আট কিলোমিটার পাড়ি দিয়ে প্রতিদিন পাঠদান ও অফিসিয়াল কাজ করতে অসুবিধা হচ্ছে। তিনি বাধ্য হয়েই অন্যত্র বদলির চেষ্টা করছেন।

কুমরী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা দাতা সদস্য নূরুল ইসলাম বলেন, বিদ্যালয়টিতে দীর্ঘদিন থেকে শিক্ষক সংকট রয়েছে। একাধিকবার বিষয়টি শিক্ষা অফিসে জানিয়েও শিক্ষক আনা যাচ্ছে না।

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নূর মোহাম্মদ বলেন, শিক্ষক সংকটের বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে। এছাড়া অনুপস্থিত থাকা শিক্ষকের ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

(ঢাকাটাইমস/৭মার্চ/প্রতিনিধি/জেডএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত