খালেদা দেশ ধ্বংস করতে চেয়েছিলেন: শিল্পমন্ত্রী

নরসিংদী প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৭ মে ২০১৭, ১৭:৩৩

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু বলেছেন, ‘নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করে দেশের উন্নয়ন করা যায় না। ৫ তারিখের নির্বাচন না হলে দেশে সাংবিধানিক সংকটের সৃষ্টি হতো। খালেদা জিয়া দেশে সাংবিধানিক শূন্যতা সৃষ্টি করে দেশকে ধ্বংস করতে চেয়েছিলেন। শেখ হাসিনা সরকার ছাড়া দেশে কোন উন্নয়ন সম্ভব নয়।’

রবিবার সকালে নরসিংদী স্টেডিয়ামে নরসিংদী জেলা যুবলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির ভাষণে এসব কথা বলেন তিনি।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, ‘শেখ হাসিনার শাসনামলেই তিস্তা চুক্তি সম্পাদিত হবে। ক্ষমতায় থাকাকালে খালেদা জিয়া ভারত সফর থেকে ফিরে সাংবাদিকদের বলেছিলেন- তিনি তিস্তার কথা ভুলে গিয়েছিলেন।’

তিনি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মাধ্যমে দেশের মুক্তিযুদ্ধকে হত্যা করা হয়েছে। শেখ হাসিনাকে হত্যা করার জন্য ১৯ বার অপচেষ্টা চালানো হয়েছে। কিন্তু তাকে হত্যা করতে পারেনি। পাকিস্তানের ২২ পরিবার থেকে ২২ হাজার পরিবার সৃষ্টির জন্য বঙ্গবন্ধু এদেশ স্বাধীন করেননি। কারো ব্যক্তিগত স্বার্থে যেন দল ব্যবহৃত না হয়। কারো ব্যক্তিগত স্বার্থে দল যেন কালিমালিপ্ত না হয়, সে দিকে খেয়াল রাখার জন্য তিনি যুবলীগ নেতাকর্মীদের উপর আহবান জানান।’

তিনি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু দেশকে স্বাধীন করেছেন। তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাকে পূর্ণাঙ্গ রূপ দিচ্ছেন।’

সম্মেলনের উদ্বোধন করেন যুবলীগের চেয়ারম্যান মো. ওমর ফারুক চৌধুরী। প্রধান বক্তা ছিলেন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. হারুন অর রশিদ।

সম্মেলনে বিশেষ অতিথি ছিলেন- পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী লে. কর্নেল (অব.) মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম হিরু, মনোহরদী-বেলাব এমপি নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন, শিবপুরের এমপি সিরাজুল ইসলাম মোল্লা, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মতিন ভূইয়া, নরসিংদী পৌর মেয়র কামরুজ্জামান কামরুল, শিবপুরের সাবেক এমপি জহিরুল হক ভূইয়া মোহন, পলাশের সাবেক এমপি ও পলাশ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ডা. আনোয়ারুল আশরাফ খান দিলীপ।

জেলা যুবলীগের সভাপতি একরামুল ইসলামের সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন- জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মাহবুবুর রহমান ভূইয়া, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক বিজয় কৃষ্ণ গোস্বামী, ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শামীম নেওয়াজ প্রমুখ।

যুবলীগ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বাধীন বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার একটি শক্তিশালী সরকার হিসেবে দেশ-বিদেশে পরিচিতি পেয়েছে। কিন্তু সরকার যতটা শক্তিশালী আমাদের দল ততটা শক্তিশালী নয়। দলকে সুসংগঠিত করার জন্য যুবলীগ নেতাকর্মীদের এগিয়ে আসতে হবে। যুবলীগ যুবকদের সংগঠন। যুবক না হয়ে কেউ জ্ঞান অর্জন করতে পারে না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশ্বের একমাত্র নেতা- যার ১০টি ব্রান্ডিং কর্মসূচি দেশকে উন্নতির চরম শিখরে নিয়ে যাবে। আর এতেই রয়েছে জনগণের কল্যাণ।’

তিনি বলেন, ‘৫ তারিখে নির্বাচন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশকে তালেবান রাষ্ট্র বানাবার ষড়যন্ত্র রুখে দিয়েছেন।’

সম্মেলনে বিজয় কৃষ্ণ গোস্বামীকে সভাপতি ও শামীম নেওয়াজকে সাধারণ সম্পাদক করে নরসিংদী জেলা যুবলীগের কমিটি ঘোষণা করা হয়।

(ঢাকাটাইমস/৭মে/প্রতিনিধি/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত