বিয়ের শাড়ি গলায় পেঁচিয়ে গৃহবধূর আত্মহত্যা

জামালপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৯ জুন ২০১৭, ১৬:০১

জামালপুর সদর উপজেলায় বিয়ের শাড়ি গলায় পেঁচিয়ে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। ওই গৃহবধূর নাম পপি আক্তার।

উপজেলার গোদাশিমলা বন্দেরবাড়ী গ্রামে বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। পরে খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নাছিমুল ইসলাম জানান, ৮ মাস আগে গোদাশিমলা বন্দের বাড়ী গ্রামের সামছুল হকের ছেলে সুজন মিয়ার সাথে লক্ষ্মীরচর ইউনিয়নের চর যথার্থপুর গ্রামের মানি মিয়ার মেয়ে পপির বিয়ে হয়। স্বামী সুজন বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী হওয়ায় স্বামীর সংসারে থাকার অস্বীকৃতি জানিয়ে ৩ মাস আগে বাবার বাড়িতে চলে যায়।

তিনি জানান, পরে বুধবারে ছেলেকে নিয়ে ছেলের বাবা পুত্রবধূকে আনতে যান। মেয়ের বাবা ও ছেলের বাবা বুঝিয়ে পপিকে শ্বশুর বাড়িতে নিয়ে আসেন। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে পপি ঘরের ধর্ণার সাথে গলায় বিয়ের শাড়ি পেঁচিয়ে ফাঁস টানিয়ে আত্মহত্যা করেন।

এ ব্যাপারে জামালপুর সদর থানায় অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

(ঢাকাটাইমস/৯জুন/প্রতিনিধি/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত