ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত

ফরিদপুরে প্রবীর সিকদারের বিরুদ্ধে বিশাল মানববন্ধন

ফরিদপুর প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৬ মে ২০১৯, ১৫:০২ | প্রকাশিত : ১৬ মে ২০১৯, ১৪:৪৫

ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরসহ দলের নেতা ও বিশিষ্টজনদের নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কটূক্তি ও ভিত্তিহীন প্রচারণা চালানোয় বিতর্কিত সাংবাদিক প্রবীর সিকদারের বিরুদ্ধে ফরিদপুরে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ হয়েছে। বিক্ষোভ শেষে পুড়ানো হয়েছে তার কুশপুতুল।

আজ বৃহস্পতিবার হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ, পুজা উদযাপন পরিষদসহ ফরিদপুরের সর্বস্তরের সচেতন হিন্দুসমাজের ব্যানারে এই কর্মসূচি পালন করা হয়। এতে হাজার হাজার মানুষ অংশ নেন।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ফরিদপুর সদর শাখার সাবেক কমান্ডার ও ঝিলটুলী পুরাতন কালিবাড়ি মন্দিরের সেবায়েত মুক্তিযোদ্ধা কমলেশ চক্রবর্তী। সমাবেশের বক্তারা প্রবীর সিকদারের বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন ধরে সাম্প্রদায়িক উসকানিমূলক বক্তব্য প্রচারের অভিযোগ এনে তাকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেন। প্রবীর সিকদার হিন্দুসম্প্রদায়ের কেউ নন বলেও উল্লেখ করেন তারা।

ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সুবল চন্দ্র সাহা বলেন, প্রবীর সিকদার দুর্বৃত্তদের হামলায় পা হারানোর পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রচেষ্টায় সিঙ্গাপুর থেকে চিকিৎসা করিয়ে তার পা পুনঃস্থাপন করান। আর এখন সেই পায়ের ওপর ভর করে তিনি আওয়ামী লীগের নেতাদের  বিরুদ্ধে বিষোদগার করে চলেছেন। এমনকি তিনি সবশেষ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের বিরুদ্ধেও ফেসবুকে প্রচারণা চালান।

প্রবীর সিকদারের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার জোর দাবি জানান ফরিদপুর পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সুকেশ সাহা। তিনি বলেন, ‘প্রবীর সিকদার যেভাবে ফেসবুকে পোস্ট দিচ্ছেন তাতে তাকে আর ক্ষমা করা যায় না। তিনি (প্রবীর) হিন্দুসম্প্রদায়ের শক্রতে পরিণত হয়েছেন।’

ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে প্রবীর সিকদার সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করছেন অভিযোগ করে ফরিদপুর জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের অন্যতম সদস্য অশোক কুমার সাহা তাকে হুঁশিয়ার করেন, ‘আপনি সাবধান হয়ে যান। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করবেন না।’

ফরিদপুর জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা আবুল ফয়েজ শাহনেওয়াজ ফরিদপুরে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির কথা তুলে ধরেন। বলেন, ‘হিন্দু, মুসলিম, বৌদ্ধ, খ্রিষ্টান যুগের পর যুগ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির মধ্যে বসবাস করছে। অথচ এখানে আওয়ামী লীগের নেতাদের নামে কুৎসা রটানো হচ্ছে। কটূক্তি করা হচ্ছে। আমি এর তীব্র নিন্দা জানাই এবং উপযুক্ত বিচার চাইছি।’

হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের এই কর্মসূচির সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ঝর্ণা হাসান প্রবীর সিকদারের উদ্দেশে বলেন, ‘যেভাবে প্রমাণ ছাড়া আপনি একের পর এক নেতাদের নামে অপপ্রচার চালাচ্ছেন, আপনার বিরুদ্ধে হাজার হাজার মানহানি মামলা হওয়া উচিত। প্রয়োজনে আপনার বিরুদ্ধে ঝাড়– মিছিল বের করব।’

প্রবীর সিকদারের ফাঁসির দাবি করেন ফরিদপুর জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি শওকত আলী জাহিদ  বলেন, ‘তিনি ফরিদপুরের হিন্দু মুসলমান বৌদ্ধ ও খ্রিষ্টানদের সম্প্রীতি বিনষ্টের ষড়যন্ত্র করছেন।’

ফরিদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি ইমতিয়াজ হাসান রুবেল প্রবীর শিকদারের এহেন জঘন্য প্রবণতার নিন্দা জানিয়ে হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের কর্মসূচির সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করেন।

সম্প্রতি সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত যুবলীগ নেতা কমল কুমার দাস কৌশিকের মৃত্যুর ঘটনা নিয়েও প্রবীর সিকদার কটাক্ষ করেছেন বলে অভিযোগ করেন ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের আইনবিষয়ক সম্পাদক জাহিদ বেপারী। প্রবীরকে হুঁশিয়ার করে তিনি বলেন, ‘আপনার লেখার কারণে যদি সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট হয় তবে আপনি দায়ী থাকবেন।’

প্রবীর সিকদার ফরিদপুরের রাজনৈতিক নেতা ও গণ্যমান্য ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে চরম ভিত্তিহীন প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন অভিযোগ করে তাকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেন ফরিদপুর জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক ফাহাদ বিন ওয়াজদ ফাইন।

ফরিদপুর জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক ও পুজা উদযাপন কমিটির অন্যতম নেতা স্বপন পাল প্রবীর সিকদারকে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেয়া থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানান। একই সঙ্গে তিনি ফরিদপুরে যারা প্রবীর শিকদারের দোসর রয়েছেন তাদের সতর্ক হওয়ার পরামর্শ দেন।

ঐক্য পরিষদের আরেক নেত্রী সুচিত্রা শিকদার প্রবীর সিকদারকে ফেসবুক সন্ত্রাসী উল্লেখ করে বলেন, ‘আপনি ভালো কাজে ফেসবুক ব্যবহার করুন। পরিষ্কার জায়গাকে খুঁচিয়ে ঘা বানাবেন না।

রুকসুর সাবেক ভিপি নিপুণ কর্ম্মকার বলেন, মিথ্যা গুজব ছড়িয়ে প্রবীর সিকদার ফরিদপুরে সাম্প্রদায়িক বিষবাষ্প ছড়াচ্ছেন। আজকের এই কর্মসূচির সঙ্গে আমরা একাত্মতা ঘোষণা করছি। বিক্ষোভ কর্মসূচি শেষে বিক্ষুব্ধ জনতা প্রবীর সিকদারের দুটি কুশপুত্তল দাহ করে।

(ঢাকাটাইমস/১৬মে/প্রতিনিধি/এমআর/মোআ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :