মাগুরায় হত্যার পর পোড়া লাশের পরিচয় মিলেছে, আটক ৩

মাগুরা প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৭ মার্চ ২০২১, ২০:৪২

মাগুরার চাঞ্চল্যকর হত্যার শিকার অগ্নিদগ্ধ অজ্ঞাত ব্যক্তির পরিচয় মিলেছে। গত ১ মার্চ সকালে উদ্ধার হওয়া লাশটি মাগুরা সদরের দারিয়াপুর গ্রামের এসকেন মোল্যার(৭৩)। জুয়া খেলায় হেরে যাওয়ায় অন্যান্য জুয়াড়িরা তাকে হত্যা করে আগুনে পুড়িয়ে দেয়। রবিবার সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়েছে পুলিশ।

সকালে মাগুরা সদর থানা সম্মেলন কক্ষে প্রেস ব্রিফিংয়ে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম জানান, সদরের গৌরিচরণপুর গ্রামে এসকেন মোল্যা দীর্ঘদিন এলাকা থেকে চলে গিয়ে ঝিনাইদহ সদরের ফুলুল বেড়বাড়ি এলাকায় বসবাস করছিলেন। এসকেন মোল্যা একজন দক্ষ জুয়াড়ি ছিল। তিনি বেশিরভাগ সময়ই জুয়ায় জিততেন। ফলে অন্যান্য জুয়াড়িদের ভিতরে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।

গত ১ মার্চ ঘটনার রাতে সদরের দারিয়াপুর আবু তাহেরের মেহগনি বাগে জুয়ার আসর থেকে তাকে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়। ঘটনাস্থল থেকে বিভিন্ন আলামতের মধ্যে এসকেন মোল্যার ব্যবহৃত ভাঙা মোবাইলফোন উদ্ধার হয়।

ফোনের সূত্র ধরে গত ৬ মার্চ জুয়ার সহচর সদরের ধলহরা কালুপাড়া গ্রামের মৃত নজরুল মোল্যার ছেলে চাতাল শ্রমিক মিনহাজকে(২৮) গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

মিনহাজ আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। এ হত্যাকাণ্ডে পাঁচজন অংশ নেয়। পুলিশ পরে হত্যার সঙ্গে সম্পৃক্ত সদরের সাচানি রাউতড়া গ্রামের মৃত সৈয়দ আলী শেখের ছেলে শহর আলী(৬৯) ও রাজারামপুর গ্রামের মৃত নববাজ বিশ্বাসের ছেলে আনসার উদ্দিনকে (৬৫) গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

গ্রেপ্তাররা জানান, তারা দীর্ঘদিন একসঙ্গে জুয়া খেলে আসছিলেন। কিন্তু জুয়া খেলায় প্রতিবারই তারা এসকেন মোল্যার কাছে হেরে যান। এর ফলে ক্ষোভের বশবর্তী হয়ে প্রথমে তার মাথার পেছনে রড দিয়ে আঘাত করে ও পরে তাকে গলায় স্টিলের চেইন দিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে।

এছাড়া হত্যার আলামত নষ্ট করার জন্য মরদেহ আগুনে পুড়িয়ে দেয়া হয়। সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মাগুরা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শামীম খান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কামরুল হাসানসহ অন্যরা।

এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা করেছে।

(ঢাকাটাইমস/৭মার্চ/কেএম)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :