হুমায়ূন আহমেদের প্রথম ই-বুক এখন সেই বইয়ে

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৭, ১৪:৪০

চলছে ভাষার মাস। তারই সঙ্গে চারদিকে বইছে বসন্তের পাগলা হাওয়া। এমন দিনে বসন্ত-প্রিয় লেখক নন্দিত কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদ এলেন বইমেলায়, নতুন করে, নতুনভাবে। এই প্রথম ই-বুক আকারে প্রকাশিত হয়েছে জনপ্রিয় এই লেখকের পাঠকপ্রিয় উপন্যাস ‘লীলাবতী’। বইটির ই-বুক ভার্সন ইতোমধ্যে প্রকাশ করেছে বাংলা ভাষার সর্ববৃহৎ অনলাইন ই-বুক স্টোর ‘সেই বই’। এ উপলক্ষে ২০ ফেব্রুয়ারি সোমবার বিকাল ৪টায় বইমেলায় ‘সেই বই’-এর স্টলে বইটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন লেখকের সহধর্মিণী, জনপ্রিয় অভিনেত্রী ও নির্মাতা মেহের আফরোজ শাওন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ডার্ড গ্রুপের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার ইতেমাদ উদ দৌলাহ, ডার্ড গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং ‘সেই বই’-এর প্রতিষ্ঠাতা নাবিল উদ দৌলাহ, ডার্ড গ্রুপের পরিচালক (অর্থ) সেজুঁতি দৌলাহ, অমর একুশে গ্রন্থমেলা পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব ড. জালাল আহমেদ এবং বাংলা একাডেমির উপ পরিচালক শাহাদাৎ হোসেন নিপু।

ইতেমাদ উদ দৌলাহ বলেন, সেইবই-এর উদ্যোক্তা মূলত আমার ছেলে দীপ্ত ও মেয়ে সেজুতি। আজ সেইবই-এ হুমায়ূন আহমেদের বইয়ের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করতে এসেছেন তার সহধর্মিণী মেহের আফরোজ শাওন। আমরা তাকে  পাশে পেয়ে অনুপ্রাণিত হলাম।

নাবিল উদ দৌলাহ বলেন, বাংলা সাহিত্যের একজন আইকন হুমায়ূন আহমেদ। তার মতো একজন লেখকের বই পেয়ে আমরা গর্বিত। এই প্রথম ই-বুক আকারে হুমায়ূন আহমেদের বই আমরা প্রকাশ করতে পেরেছি। এটা আমদের জন্য আনন্দের। 

মেহের আফরোজ শাওন বলেন, হুমায়ূন আহমেদের বইয়ের পাঠকের একটা অংশ দেশের বাইরে থাকেন। তারা সব সময় তার বইয়ের ই-বুক ভার্সন চেয়ে আসছিলেন। ডিজিটাল মাধ্যমে হুমায়ূন আহমেদের যেসব বই পাওয়া যায়, তার সবগুলোই অনৈতিকভাবে ও অনিয়ন্ত্রিতভাবে পিডিএফ আকারে প্রকাশিত হয়ে আসছে। এতে লেখক ও পাঠক দু-পক্ষই ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন। সেইবই প্রথম এই অনৈতিক কার্যক্রমের বিরদ্ধে দাঁড়িয়েছে। এজন্য সেইবইকে আন্তরিক ধন্যবাদ। আশা করি তাদের এই কার্যক্রম সফলভাবে পরিচালিত হবে। আজ থেকে হুমায়ূন আহমেদের বইয়ের ইবুকের আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হলো। আমরা করব জয়।

উল্লেখ্য, পর্যায়ক্রমে হুমায়ূন আহমেদের আরো বেশ কিছু বই আসবে ‘সেই বই’-এ। বইপ্রেমীদের হাতে বই তুলে দেয়ার একটি নতুন উদ্যোগের নাম সেই বই। এটি মূলত একটি মোবাইল অ্যাপ। মোবাইল থেকে ব্যবহারকারী তার পছন্দের বইয়ের ই-বুক ডাউনলোড করে পড়তে পারবেন সহজেই। অ্যাপটিতে আছে নির্দিষ্ট অংশ হাইলাইট করা, ডিকশনারি সুবিধা, টেক্সট ছোট-বড় করা, পাতার রঙ পরিবর্তন এবং বইয়ের অংশবিশেষ শেয়ার করা ইত্যাদি।

(ঢাকটাইমস/২৩ফেব্রুয়ারি/এজেড)

সংবাদটি শেয়ার করুন

সাহিত্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত