ভবন ধসের শঙ্কায় পাকুন্দিয়ায় খোলা আকাশের নিচে পাঠদান

সাখাওয়াত হোসেন হৃদয়, পাকুন্দিয়া (কিশোরগঞ্জ) থেকে
 | প্রকাশিত : ২২ মে ২০১৭, ০৮:১২

কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলার চরপলাশ উচ্চ বিদ্যালয় ভবনের সামনের তিনটি পিলার সম্প্রতি কালবৈশাখী ঝড়ে বিধ্বস্ত হয়েছে। ফলে ভবন ধসের আশঙ্কায় বর্তমানে খোলা আকাশের নিচে চলছে শিক্ষার্থীদের পাঠদান। তবে বৃষ্টি মৌসুম বলে আকাশে মেঘ দেখলেই ছুটি হয়ে যায় বিদ্যালয়টি। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে ইতোমধ্যেই স্থানীয় সংসদ সদস্য, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত আবেদন করেছেন।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আবদুল মান্নান ঢাকাটাইমসকে জানান, এলাকার অবহেলিত শিক্ষার্থীদের শিক্ষা প্রদানের লক্ষ্যে ১৯৬৪ সালে বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত হয়। বিদ্যালয়ের উত্তর পার্শ্বের ভবনটি অত্যন্ত পুরাতন হওয়ার ফলে সম্প্রতি কালবৈশাখী ঝড়ে বিদ্যালয় ভবনের সামনের তিনটি পিলার ভেঙে যাওয়ায় ভবনটি সম্পূর্ণ ঝুকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। ছাত্র-ছাত্রীরা ভবনে প্রবেশ করতে সাহস পাচ্ছে না। বর্তমানে বিদ্যালয়ে পাঁচ শতাধিক শিক্ষার্থী ও ১৪ জন শিক্ষক-কর্মচারী রয়েছেন। কালবৈশাখী ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত ভবনটি ভেঙে অতি সত্বর নতুন ভবন নির্মাণ প্রয়োজন। অন্যথায় যেকোনো সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশঙ্কা রয়েছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, তিনটি পিলার ভেঙে যাওয়ায় বিদ্যালয়ের ভবনটি সম্পূর্ণ ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। এখানে খোলা আকাশের নিচে পাঠদান করছে শিক্ষার্থীরা।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) অন্নপূর্ণা দেবনাথ ঢাকাটাইমসকে জানান, তিনি বিদ্যালয়টি পরিদর্শন করেছেন। শিগগির বিদ্যালয়ের ভবন নির্মাণের জন্য আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হবে বলেও তিনি জানান।

(ঢাকাটাইমস/২২মে/প্রতিনিধি/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত