চাঁদপুরে বিষপানে যুবকের আত্মহত্যা

চাঁদপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৩ মে ২০১৭, ১৮:১৩
প্রতীকী ছবি

চাঁদপুর সদর উপজেলায় পারিবারিক কলহের জেরে এক যুবক আত্মহত্যা করেছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। তার নাম হাসান গাজী (২৭)।


মঙ্গলবার দুপুরে ৯ নং বালিয়া ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের পূর্ব সাপদী গ্রামের গাজী বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

হাসান গাজী ওই গ্রামের মৃত আ. জব্বার গাজীর ছেলে। হাসানের পরিবারের লোকজন  প্রথমে এর দায়ভার  তার স্ত্রীর ওপর চাপিয়ে দিতে চাইলেও খবর নিয়ে জানা যায়, গত এক বছর ধরে প্রেমের সর্ম্পকে বিয়ে করার অপরাধে তাকে স্ত্রী নিয়ে বাড়িতে ঠাঁই দিচ্ছিল না পরিবার। এ কারণে তিনি আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন।

হাসানের মাতা জাহানারা বেগমসহ পরিবারের লোকজন জানান, প্রায় এক বছর পূর্বে ফরিদগঞ্জ উপজেলার সকদীরামপুর গ্রামের শহীদ গাজীর মেয়ে হাবিবা আক্তার মুন্নির (২০) সাথে হাসান গাজীর প্রেমের সম্পর্কে বিয়ে হয়। তাদের অভিযোগ মুন্নির স্বামী থাকা সত্বেও মোবাইল ফোনে সে এক  যুবকের সাথে প্রেমের সর্ম্পক গড়ে তুলে। এ নিয়ে প্রায়ই তাদের মধ্যে অনেক বাকবিত-া হতো।  এ কারণেই হাসান বিষপান করে আত্মহত্যা করেছে।

হাসানের পরিবারের লোকজন আরো জানায়, সে তার শ^শুর বাড়িতে থাকতো। আজ হাসান ঘরে আসার পর হাসান হঠাৎ মৃত্যু যন্ত্রণায় ছটফট করে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। তারা তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্মরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তবে হাসানের স্ত্রী হাবিবা আক্তার মুন্নি ও শ^শুর বাড়ির লোকজন জানান, হাসান প্রেম করে বিয়ে করার কারণে বিয়ের পর থেকে তার ভাই এবং মা-বোনরা তাকে বাড়িতে আসতে দেয়নি। একারণে সে শ^শুর বাড়িতে থেকেই কাজ কর্ম করতো।

রবিবার সে তার নিজ বাড়িতে আসেন। তারপর পরের ঘটনা তারা আর কিছুই বলতে পারবেন না। তাদের জোরালো অভিযোগ, হাসানকে বাড়িতে  জায়গা না দেয়ার কারণেই সে ভাই বোনদের সাথে ঝগড়া করে অভিমানে বিষপানে আত্মহত্যা করেছে। এমনকি এই মৃত্যুর খবরটাও তারা তার স্ত্রী মুন্নিকে জানায়নি।

পরে হাসপাতাল কৃর্তৃপক্ষ বিষয়টি চাঁদপুর মডেল থানায় অবগত করলে থানার উপপরিদর্শক (এসআই) অনুপ চক্রবর্তী সর্ঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে লাশের সুরতহাল রির্পোট তৈরি করে থানায় নিয়ে যান।

(ঢাকাটাইমস/২৩মে/প্রতিনিধি/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত