অপহরণের ১৮ দিনেও উদ্ধার হয়নি মাদ্রাসাছাত্র নাহিদ

নরসিংদী প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১০ জুন ২০১৭, ১৮:৩৩ | প্রকাশিত : ১০ জুন ২০১৭, ১৮:২৯

অপহরণের দীর্ঘ ১৮ দিনেও অপহৃত মাদ্রাসাছাত্র শিশু নাহিদকে উদ্ধার করতে পারছে না শিবপুর থানা পুলিশ। নাহিদকে উদ্ধারের জন্য তার ফুফু শাহিদা আক্তার পুলিশের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়াচ্ছে। অথচ পুলিশ বিষয়টি গুরুত্ব দিচ্ছে না বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শনিবার নাহিদের ফুফু সাহিদা আক্তার নরসিংদী প্রেসক্লাবে তার ভাতিজা নাহিদকে অপহরণের কাহিনি বর্ণনা করে কান্নায় ভেঙে পড়েন। তিনি জানান, নাহিদের পিতার নাম রতন মিয়া ও মায়ের নাম কুলসুম বেগম। এদের বাড়ি শিবপুর উপজেলার জানখারটেক গ্রামে। নাহিদের পিতামাতা দুজনেই লেবাননে প্রবাসী জীবনযাপন করছে। তারা বিদেশ যাবার সময় নাহিদকে দেখাশুনা করার দায়িত্ব দিয়ে যায় তার উপর। গত ২৩ মে বিকাল সাড়ে ৪টায় নাহিদ বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায়। এরপর আর সে বাড়ি ফিরেনি। তাকে বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করে কোথাও পাওয়া যায়নি।

তিনি জানান, এ অবস্থায় ৩০ মে সাহিদা আক্তার বাদী হয়ে শিবপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। সেদিন সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় নাহিদের বড় চাচা বাদলের নিকট একটি ফোন আসে। ফোনে অপহরণকারী জানায় যে, নাহিদ তাদের হেফাজতে রয়েছে। ২০ হাজার টাকা নিয়ে হবিগঞ্জ গেলে তাকে ফিরিয়ে দেয়া হবে। এই কথা শোনার পর ফুফু সাহিদা আক্তার ওই নাম্বারটিতে ফোন করলে ফোন রিসিভ করে একজন মহিলা। সাহিদা তার পরিচয় জিজ্ঞাসা করলে সে জানায়, সে খৈনকুট গ্রামের সাব্বিরের মা। কি কারণে তাকে নেয়া হলে এ কথা জিজ্ঞাসা করা হলে সাব্বিরের মা জানান, তিনি কিছু জানেন না। এরপর মোবাইল ফোনটি বন্ধ করে দেয়।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, এই ঘটনা পুলিশকে জানানোর পরও সাব্বিরের বাড়িতে হানা দেয়। কিন্তু পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়েই সাব্বির ও তার মা, বাবা, ভাই বোন, আত্মীয়-স্বজন সবাই পালিয়ে যায়। এরপর পুলিশ নাহিদকে উদ্ধারে আর কোন তৎপরতা চালাচ্ছে না। থানা পুলিশের দ্বারে দ্বারে ঘুরেও তাদের সহানুভূতি অর্জন করতে পারেনি সাহিদা আক্তার।

(ঢাকাটাইমস/১০জুন/প্রতিনিধি/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত