হোটেলে অনৈতিক কর্মকাণ্ড বন্ধে এমপি রাসেলের আলটিমেটাম

ইফতেখার রায়হান, টঙ্গী (গাজীপুর) থেকে
| আপডেট : ১৭ জুন ২০১৭, ১৬:৫৩ | প্রকাশিত : ১৭ জুন ২০১৭, ০৮:৫৬

গাজীপুরের টঙ্গীতে যেসব হোটেলে ব্যবসার আড়ালে অনৈতিক কর্মকাণ্ড হচ্ছে সেগুলো বন্ধ করে দিতে মালিকদের সাত দিনের আলটিমেটাম দিয়েছেন সংসদ সদস্য জাহিদ আহসান রাসেল। ওইসব হোটেলের গ্যাস-পানি ও বিদ্যুৎ লাইন বন্ধ করে দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

শুক্রবার টঙ্গী প্রেস ক্লাবে আয়োজিত ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এই আলটিমেটাম দেন।

টঙ্গী ও জয়দেবপুর এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে আবাসিক হোটেলগুলোতে হোটেল ব্যবসার অন্তরালে অনৈতিক কার্যকলাপ পরিচালিত হয়ে আসছে। পবিত্র রমজান মাসেও হোটেলগুলোতে বন্ধ হচ্ছে না এসব অবৈধ কর্মকাণ্ড। এসব অনৈতিক কর্মকাণ্ড বন্ধ করার দাবিতে বেশ কয়েকবার বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছে গাজীপুর সাধারণ নাগরিকরা। তারপরও প্রশাসনের নীরব ভূমিকায় দেদারছে এসব অনৈতিক কর্মকাণ্ড পরিচালিত হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করে সাধারণ জনগণ।

প্রতিবাদে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গাজীপুরের জেলা প্রশাসক ও সাংসদ জাহিদ আহসান রাসেলের দৃষ্টি আকর্ষণ করে খোলা চিঠি দেন টঙ্গী ও গাজীপুরের হাজার হাজার নাগরিক। এর পরিপ্রেক্ষিতে এই আলটিমেটাম দিলেন সেখানকার সাংসদ।

সাংসদ রাসেল হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘আগামী মঙ্গলবারের মধ্যে ভবন মালিকদেরকে আবাসিক হোটেলের পানি ও বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করতে হবে এবং বৃহস্পতিবারের মধ্যে সব আবাসিক হোটেল বন্ধ না হলে অসামাজিক কর্মকাণ্ডে জড়িতদের পরিবার-পরিজন থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে এবার লাল দালানে ঈদ করতে হবে।’

টঙ্গী প্রেসক্লাবের সভাপতি মো. মেরাজ উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও সহ-সাধারণ সম্পাদক মো. কালিমুল্লাহ ইকবালের সঞ্চালনায় ইফতার মাহফিলে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন, গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট আজমত উল্লাহ খান, গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ভারপ্রাপ্ত মেয়র আসাদুর রহমান কিরণ, যুবলীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আজাহার উদ্দিন, গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী ইলিয়াস, গাজীপুর সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলর মো. গিয়াস উদ্দিন সরকার, টঙ্গী থানা ছাত্রলীগ সভাপতি কানন মোল্লা, টঙ্গী সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি কাজী মঞ্জুর প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এমপি জাহিদ আহসান রাসেল সাংবাদিকদের কাছে গঠনমূলক সমালোচনার দাবি করে বলেন, ‘কারো সম্মানহানি করার উদ্দেশ্যে কোনো রিপোর্ট করা কাম্য হতে পারে না। একবার সম্মান চলে গেলে আর ফিরে আসে না।’ এসময় তিনি প্রেসক্লাবের উন্নয়নে সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

এর আগে শুক্রবার বাদ জুমা টঙ্গী বাজার কেন্দ্রীয় মসজিদেও জাহিদ আহসান রাসেল যেসব আবাসিক হোটেলে অনৈতিক কার্যকলাপ চলছে তা আগামী বৃহস্পতিবারের মধ্যে বন্ধ করার নির্দেশ দেন। পরে আবাসিক হোটেলে অসামাজিক কার্যকলাপের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল করেন স্থানীয় এলাকাবাসী।

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার (১৫ জুন) দুপুরে হোটেল রাজমনির মালিক পরিচয়ে মোবাইল ফোনে জেলা প্রশাসক ড. দেওয়ান মোহাম্মদ হুমায়ুন কবীরকে হুমকি দেয়া হয়। এসময় আবাসিক হোটেলে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হলে জেলা প্রশাসককে দেখে নেয়া হবে বলে জানানো হয়। এ ঘটনায় ওই দিন জেলা প্রশাসক জয়দেবপুর থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন।

(ঢাকাটাইমস/১৭জুন/আরআই/জেবি)

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত