ফখর-আজহার-হাফিজের ব্যাটে পাকিস্তান ৩৩৮

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৮ জুন ২০১৭, ১৯:৩১ | প্রকাশিত : ১৮ জুন ২০১৭, ১৯:১০

ফখর জামানের সেঞ্চুরি। আজহার আলী ও মোহাম্মদ হাফিজের হাফ সেঞ্চুরি। আর বাবর আজম ও ইমাদ ওয়াসিমের দারুণ ইনিংস। সবমিলিয়ে বিশাল সংগ্রহ দাঁড় করালো পাকিস্তান। নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে চার উইকেট হারিয়ে পাকিস্তানের সংগ্রহ ৩৩৮ রান। ফলে, শিরোপা জিততে হলে ভারতকে করতে হবে ৩৩৯ রান।

দলের পক্ষে ফখর জামান ১১৪, আজহার আলী ৫৯, বাবর আজম ৪৬, মোহাম্মদ হাফিজ ৫৭ ও ইমাদ ওয়াসিম ২৫ রান করেন। ভারতের পক্ষে ভুবনেশ্বর কুমার ১টি, হার্দিক পান্ডে ১টি, কেদার যাদব ১টি করে উইকেট নেন।   

আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনাল ম্যাচে আজ টস জিতে পাকিস্তানকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় ভারত। পাকিস্তান ব্যাটিংয়ে নেমে দারুণ সূচনা করে। ওপেনিং জুটিতে ১২৮ রানের পার্টনারশিপ গড়েন আজহার আলী ও ফখর জামান। ইনিংসের ২৩তম ওভারে ভুল বোঝাবুঝিতে রান আউট হয়ে ফেরেন আজহার আলী। ফেরার আগে ৫৯ রান করেন তিনি। ওয়ানডে ক্যারিয়ারে এটি তার ১২তম হাফ সেঞ্চুরি।

এরপর দারুণ ব্যাট করে আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে প্রথম সেঞ্চুরি তুলে নেন ফখর জামান। ওয়ানডেতে আজ চতুর্থ ম্যাচ খেলছেন তিনি। এই ফরম্যাটে এর আগে দুইটি হাফ সেঞ্চুরি করেছেন তিনি।

ইনিংসের তৃতীয় ওভার শেষে ফখর জামানের ব্যক্তিগত রান ছিল তিন। চতুর্থ ওভারে বল করতে আসেন জ্যাসপ্রীত বুমরাহ। স্ট্রাইকে তখন ফখর জামান। প্রথম বলটি হলো ওয়াইড। দ্বিতীয় বলটিতে উইকেটরক্ষকের হাতে ধরা পড়েন ফখর জামান।

প্যাভিলিয়নের পথেও রওয়ানা হয়েছিলেন তিনি। কিন্তু আম্পায়ার তাকে একটু থামতে বলেন। তৃতীয় আম্পায়ারের মাধ্যমে নিশ্চিত হন এটি নো বল ছিল কিনা। পরে দেখা যায় বলটি নো বল ছিল। ফলে, বেঁচে যান ফখর।

সেই বেঁচে যাওয়া ফখর জামান সেঞ্চুরি করে সাজঘরে ফেরেন। ইনিংসের ৩৪তম ওভারে হার্দিক পান্ডিয়ার বলে রবীন্দ্র জাদেজার হাতে ধরা পড়েন তিনি। ফেরার আগে ফখর জামান ১০৬ বল খেলে করেন ১১৪ রান। এই রান করার পথে ১২টি চার ও তিনটি ছক্কা মেরেছেন তিনি।

ইনিংসের ৪০তম ওভারে ভুবনেশ্বর কুমারের বলে কেদার যাদবের হাতে ক্যাচ হন শোয়েব মালিক। ১৬ বল খেলে ১২ রান করেন তিনি। এরপর ইনিংসের ৪৩তম ওভারে কেদার যাদবের বলে যুবরাজ সিংয়ের হাতে ধরা পড়েন বাবর আজম। ৫২ বল খেলে ৪৬ রান করেন তিনি।

এরপর মোহাম্মদ হাফিজ ও ইমাদ ওয়াসিম ৭১ রানের পার্টনারশিপ গড়ে অপরাজিত আছেন। ৩৭ বল খেলে ৫৭ রান করেন মোহাম্মদ হাফিজ। আর ২১ বল খেলে ২৫ রান করেন ইমাদ ওয়াসিম।

সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডকে আট উইকেটে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছিল পাকিস্তান। আর বাংলাদেশকে নয় উইকেটে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছিল ভারত।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

পাকিস্তান ইনিংস: ৩৩৮/৪ (৫০ ওভার)

(আজহার আলী ৫৯, ফখর জামান ১১৪, বাবর আজম ৪৬, শোয়েব মালিক ১২, মোহাম্মদ হাফিজ ৫৭*, ইমাদ ওয়াসিম ২৫*; ভুবনেশ্বর কুমার ১/৪৪, জ্যাসপ্রীত বুমরাহ ০/৬৮, রবীচন্দ্রন অশ্বিন ০/৭০, হার্দিক পান্ডিয়া ১/৫৩, রবীন্দ্র জাদেজা ০/৬৭, কেদার যাদব ১/২৭)।

(ঢাকাটাইমস/১৮ জুন/এসইউএল)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত