তাইওয়ান প্রণালীতে মার্কিন যুদ্ধজাহাজ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
 | প্রকাশিত : ১৮ অক্টোবর ২০২১, ১৪:৩৯

ফের সম্মুখসমরে চীন-যুক্তরাষ্ট্র। তাইওয়ান প্রণালীতে মার্কিন এবং কানাডিয়ান যুদ্ধজাহাজের উপস্থিতির জন্য তীব্র প্রতিক্রিয়া জানাল বেইজিং। আর এই নিয়েই ফের উত্তপ্ত হতে শুরু করল বিশ্বের দুই শক্তিধর দেশের সম্পর্ক।

গত সপ্তাহেই তাইওয়ান প্রণালীতে যাতায়াত করেছিল যুক্তরাষ্ট্র এবং কানাডার একটি যুদ্ধজাহাজ। আর সেই প্রসঙ্গেই বিবৃতি দিয়েছে চীনের। বেইজিংয়ের অভিযোগ, যুক্তরাষ্ট্রের এই কাজের জন্য এশিয়ার এই অংশের শান্তি এবং স্থিতাবস্থায় বিঘ্ন ঘটেছে।

এদিকে, মার্কিন সেনার পক্ষ থেকে জানিয়েছে, আরলেঘ বার্ক-শ্রেণীর ক্ষেপণাস্ত্র ধ্বংসকারী ইউএসএস ডিউই তাইওয়ানের সরু জলপথ দিয়ে যাতায়াত করেছে। এই জলপথই চীন ও তাইওয়ানকে আলাদা করেছে। মিত্রদেশগুলোর প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিশ্রুতি রক্ষার্থেই এসেছিল এই ডেস্ট্রয়ার। এরপরই চীন পাল্টা বিবৃতি দিয়েছে।

প্রসঙ্গত, তাইওয়ানকে বরাবরই নিজেদের অংশ বলে দাবি করে চীন। আর এর মধ্যেই চলতি মাসে টানা চারদিন তাইওয়ানের আকাশে হানা দিয়েছিলেন চীনের যুদ্ধবিমান। সে দেশ দখল নিয়ে ক্রমাগত হুঁশিয়ারিও দিয়েছে বেইজিং। তার কিছুদিন আগেই আবার মার্কিন বিদেশ দপ্তরের মুখপাত্র নেড প্রাইস জানিয়েছিলেন, তাইওয়ানের সঙ্গে সম্পর্ক আরও মজবুত করবে যুক্তরাষ্ট্র।

তিনি বলেন, 'তাইওয়ানের প্রতি আমাদের দায়বদ্ধটা পাথরের মতো কঠিন। ওই অঞ্চলে শান্তি ও স্থিতাবস্থা বজায় রাখতে এটা খুবই জরুরি। আমরা সবসময় বন্ধুদের পাশে দাঁড়াব। গণতান্ত্রিক তাইওয়ানের সঙ্গে আমরা আগামী দিনেও সম্পর্ক আরও মজবুত করে যাব।'

ঢাকাটাইমস/১৮অক্টোবর/একে

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :