পুলিশ মারধর: উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান গ্রেপ্তার

শরীয়তপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৩ নভেম্বর ২০১৬, ১৯:১৫

শরীয়তপুরে পুলিশকে মারধর ও চিকিৎসককে লাঞ্ছিত করার মামলায় সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আলমগীর হাওলাদারসহ ২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকার শের-ই-বাংলা নগর এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করে পুলিশ। সন্ধ্যায় শরীয়তপুরের পুলিশ সুপার সাইফুল্লাহ আল মামুন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
পালং মডেল থানা সূত্রে জানা যায়, গত ১ নভেম্বর শরীয়তপুর সদর হাসপাতালের চিকিৎসক দেবাশীষ সাহাকে লাঞ্ছিত করে সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ও তার লোকজন। এ সময় সেখানে উপস্থিত পুলিশ সদস্য সেলিম মাতুব্বর এ ঘটনার প্রতিবাদ করলে সদর উপজেলা ছাত্রলীগেরসহ সভাপতি আক্তার হোসেন পুলিশ সদস্যকে মারধর করে।
এ ঘটনায় পালং মডেল থানায় ডাঃ সুমন কুমার পোদ্দার ও পালং থানার উপ পরিদর্শক নজরুল ইসলাম বাদী হয়ে
আলমগীর হাওলাদার, আক্তার হোসেন ও জাগরণ শেখকে আসামি করে পৃথক ২টি মামলা করেন।
এরপর থেকে পুলিশ তাদের গ্রেপ্তার করার জন্য বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালাচ্ছিল। বৃহস্পতিবার দুপুরে শরীয়তপুরের সহকারী পুলিশ সুপার তানভীর হাসানের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল ঢাকার শের-ই-বাংলা নগর এলাকায় অভিযান চালিয়ে মামলার দুই আসামি সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আলমগীর হাওলাদার ও পালং তুলাসার মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ব্যবস্থ্যাপনা কমিটির সভাপতি জাগরন শেখকে গ্রেপ্তার করে।
তবে মামলার অপর আসামি সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সদ্য বহিষ্কৃত সহসভাপতি আক্তার হোসেন ঢালীকে এখনও গ্রেপ্তার করা যায়নি।
শরীয়তপুরের পুলিশ সুপার সাইফুল্লাহ আল মামুন বলেন, পুলিশকে মারধরের মামলার দুই আসামিকে ঢাকা থেকে আটক করা হয়েছে। তাদের শরীয়তপুর নিয়ে আসা হচ্ছে। মামলার অপর আসামি আক্তার হোসেনকে আটকের চেষ্টা চলছে।

(ঢাকাটাইমস/ ০৩ নভেম্বর/ প্রতিনিধি/ এআর/ ঘ.)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত