নারীদের উন্নয়নে দুই হাজার কোটি টাকার প্রকল্প

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৮ এপ্রিল ২০১৭, ২০:৫০

মহিলা ও শিশু বিষয় প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি জানিয়েছেন, সরকার নারীদেরকে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষ করে তুলতে চায়। এজন্য দুই হাজার কোটি টাকার প্রকল্প হাতে নেয়া হচ্ছে। সুযোগ পেলে নারীরা কোনো ক্ষেত্রে পিছিয়ে থাকবে না বলে মনে করেন প্রতিমন্ত্রী।

মঙ্গলবার বিকালে রাজধানীর সিরডাপ মিলনাতনে এক অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন। ‘বৈশ্বিক উন্নয়নে এজেন্ডা ও নারীর অধিকার: নতুন বিবেচনা’ শীর্ষক নাগরিক সংলাপের আয়োজন করে এসডিজি বাস্তবায়ন প্লাটফর্ম, বাংলাদেশ।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, এসডিজি লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সবাইকে নিয়ে একসাথে কাজ করে যেতে হবে, কাউকে পিছে রেখে এটা অর্জন সম্ভব নয়।তিনি বলেন, সরকারের একার পক্ষে এককভাবে সম্ভব নয়, সবাই মিলেই কাজ করতে হবে। তবে নেতৃত্ব দেবে সরকার।

মেহের আফরোজ বলেন, ‘সবাইকে সম্মিলিতভাবে নিয়েই কাজ করব। এমডিজিতে শতভাগ অর্জন করেছি, এরই ধারাবাহিকতায় এসডিজি। এসডিজি অর্জনে নারীদের সমতায় আনতে তাদেরকে বেশি বেশি সুযোগ দিতে হবে।’

চুমকি বলেন, ‘যারা দীর্ঘ দিন সুযোগ পেয়েছে তারা অন্যকে সুযোগ দিতে চায় না। এই মানসিকতা পরিবার থেকে করতে হবে। মাইন্ডসেটের বিষয়টি পরিবার থেকেই করতে হবে।’

এসডিজির অ্যাকশন প্লানে সব বিষয় থাকবে উল্লেখ করে চুমকি বলেন, ‘প্রতিবন্ধীদের জন্য সরকার কাজ করে যাচ্ছে। নারীর প্রতি সহিংসতা রোধে ওয়ান স্টপ ক্রাইসেস সেন্টারের মাধ্যমে ভায়লেন্স না করার জন্য কাজ করে যাচ্ছে সরকার।’

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘সরকার নারীদের জন্য ৯৪ ডে কেয়ার সেন্টার করেছে, আরও ৬০টি প্রক্রিয়াধীন। সব ক্ষেত্রে মেয়েরা সুযোগ পেলে সফল হচ্ছে।’

অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের সদস্য শামছুল আলম। বলেন, এসডিজি ৭ম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা বাস্তবায়ন চলছে, ৮ম, ৯ম পঞ্ম বার্ষিকী পরিকল্পনার বাস্তবায়ন হবে। আগামী মে মাসেই সব মন্ত্রণালয়ের জন্য এসডিজি বাস্তবায়নে পরিপূর্ণ কর্মসূচি থাকবে।

দেবপ্রিয় ভট্টাচাযের সঞ্চালনায় আরও বক্তব্য দেন অধ্যাপক ওয়াহেদ উদ্দিন আহম্মেদ, অ্যাডভোকেট সালমা আলী, অধ্যাপক মালেকা বেগম প্রমুখ। (ঢাকাটাইমস/১৮এপ্রিল/জিএম/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

নারীমেলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত