চুল, ত্বক ও নখের যত্নে লেবুর ১০ ব্যবহার

ঢাকা টাইমস ডেস্ক
 | প্রকাশিত : ২৫ জুন ২০১৯, ১০:৫৫

লেবুর শরবত কার না প্রিয়? আর এই প্রচণ্ড গরমে লেবু মিশ্রিত পানীয় তো সবারই চাই। কিন্তু শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ ভালো রাখতে টক রসে ভরা এই ফলটির রয়েছে বিশেষ গুণ। এটা প্রমাণিত যে, মানুষের ত্বক ও চুলের জন্য লেবু অত্যন্ত উপকারী। সৌন্দর্য্য রক্ষা ও বর্ধনে লেবুর রয়েছে অসাধারণ গুণাগুণ। এখানে লেবুর এমন ১০টি ব্যবহারবিধি তুলে ধরা হলো।

১. ত্বক উজ্জ্বল করে

লেবুর রয়েছে ব্যাকটেরিয়ারোধী শক্তিশালী উপাদান, যা ব্যাকটেরিয়া থেকে সৃষ্ট সমস্যা রোধ করে। ত্বকের স্বকীয়তা বজায় রাখতে নারিকেলের কয়েক ফোঁটা পানির সঙ্গে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস মিশিয়ে নিন। নারিকেলের পানি ত্বকের আদ্রতা কমাবে আর লেবু ত্বক পরিষ্কার করবে এবং উজ্জ্বলতা বাড়াবে। তবে স্পর্শকাতর ত্বক হলে এই মিশ্রণ সামান্য একটু লাগিয়ে দেখতে পারেন।

২. কনুই ও হাঁটুর উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি

লেবু ভিটামিন সি সমৃদ্ধ, ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে যা প্রাকৃতিক একটি উপাদান। কনুই এবং হাঁটু কালচে হয়ে গেলে একটি লেবুর অর্ধেক কেটে তা আলতো করে কিছুক্ষণ ঘষুন। তারপর দেখুন জাদু!

৩. কালো দাগ দূর করে

লেবুর মধ্যে আছে সাইট্রিক এসিড। এটি কালো দাগ দূর করতে সাহায্য করে। এক ফালি লেবু দেহের কালো হয়ে যাওয়া অংশগুলোতে ঘষুন। এটি লোমকূপ পরিষ্কার করে উজ্জ্বলতা বাড়াতে বিস্ময়কর ফল দেবে।

৪. টিস্যু পরিষ্কারক

দুই ফোঁটা লেবুর রস, চা পাতি ও সামান্য পানি। এই তিন উপাদানের মিশ্রণ সমস্যাযুক্ত ত্বক পরিষ্কারে টোনার হিসেবে ব্যবহার করা যেতে পারে। এটি কটন প্যাডের মাধ্যমেও লাগানো যেতে পারে।

৫. দাঁত সাদা করা

হলদে দাঁত সাদা করতে বেকিং সোডার সঙ্গে লেবুর রস মিশিয়ে পেস্ট বানিয়ে নিন। টুথব্রাশের মাধ্যমে এই পেস্ট দিয়ে দাঁত মাজুন। পরিষ্কার পানিতে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এটি দাঁতকে আরও সাদা ও চকচকে করবে।

৬. ত্বক বাঁচাতে

ভিটামিন সি ও সাইট্রিক এসিডের কারণে ত্বকে দীর্ঘদিন লেবুর ব্যবহারে উজ্জ্বলতা বাড়ে। ক্ষতিকর রশ্মির অকার্যকর করতে ভিটামিন সি অত্যন্ত কার্যকর এবং এটি ত্বকের জন্য উপকারী কোলাজেন উৎপাদনে সাহায্য করে। ফলে এটি দেহের কালো দাগ সহজেই দূর করতে পারে।

৭. জ্বলে যাওয়া রোধ

লেবুর সাইট্রিক এসিড রক্তচাপ ঠিক রাখতে প্রাকৃতিক উপাদান হিসেবে কাজ করে। ত্বকে তৈলাক্তভাব বেশি থাকলে কটন প্যাডে কয়েক ফোঁটা লেবুরস দিয়ে ত্বক পরিস্কার করুন। দূর হবে তৈলাক্ততা।

৮. ঠোঁটের সৌন্দর্য্য রক্ষা

লাল চিনির সঙ্গে লেবুর রস মিশিয়ে ঠোটে স্ক্রাব করুন। এতে ঠোঁটের মৃত সেলগুলো উঠে যাবে। তবে ঠোঁট ফেটে গিয়ে ক্ষত হলে এটি ব্যবহার করা যাবে না।

৯. নখের শক্তি বৃদ্ধি

নখে অতিরিক্ত প্রসাধনী ব্যবহার করলে অলিভ ওয়েলের সঙ্গে লেবুর রস মিশিয়ে নখ ভিজিয়ে রাখুন। নখ খুব শুষ্ক ও দুর্বল হলে এটি খুব ভালো কাজে দেবে। এমনকি নখ হলুদ হয়ে গেলেও এই চর্চা নখের সঠিক রং আনার ক্ষেত্রে কার্যকর ফল দেবে।

১০. চুলের উজ্জ্বলতা

চুলের উজ্জ্বলতা রক্ষা ও বাড়াতে লেবু রসের তুলনা নেই। রোদে বাইরে বের হওয়ার আগে এই রস লাগাতে পারেন। এমনকি ফ্যাশনেবল চুল পেতে চুলের অগ্রভাগে লেবুর রস লাগান।

ঢাকা টাইমস/২৫জুন/কেএইচ/একে

সংবাদটি শেয়ার করুন

ফিচার বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত