খাদ্যে বিষক্রিয়া: চাঁদপুরে একই পরিবারের ছয়জন অচেতন

চাঁদপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯:৪৫

চাঁদপুর শহরের ব্যাংক কলোনি এলাকায় নেশাজাতীয় দ্রব্যমিশ্রিত খাবার খেয়ে একই পরিবারের ছয়জন অচেতন হয়ে পড়েছেন। মুমুর্ষূ অবস্থায় তারা চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

রবিবার রাতে ব্যাংক কলোনির জাহাঙ্গীর সেলিমের বাসায় এই ঘটনা ঘটে।

অচেতন হওয়া ব্যক্তিরা হচ্ছেন ওই বাসার ভাড়াটিয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক আব্দুল করিম (৫৮), তার স্ত্রী রাবেয়া বেগম (৫২), ছেলে কামরুল হাসান (২৪) কামরুলে স্ত্রী হাসনা আক্তার (২১), আব্দুল করিমের নাতি নাহিদ হাসান (১৩) ও ইমান হোসেন (১১)।

আব্দুল করিমের মেয়ের জামাতা মোর্শেদ আলম ঢাকাটাইমসকে বলেন, ব্যাংক কলোনির ওই বাড়ির নিচতলায় তারা ভাড়া থাকেন। শনিবার তার শ্বশুর ব্যাংক কলোনি থেকে ব্রয়লার মুরগি কিনে বাসায় আনলে ওই দিনই মুরগি রান্না করে অর্ধেকটা পরিবারের সবাই খান। বাকি অংশ রবিবার রাতে খাবারের জন্য চুলার মধ্যে গরম করতে দিয়ে ঘরে একটু দূরে গেলে কোনো চক্র তাদের খাবারের সাথে বিষক্রিয়া মিশিয়ে দেয় বলে তারা ধারণা করছেন। রাত সাড়ে ১১টার দিকে সবাই মুরগি দিয়ে রাতের খাবার খাওয়ার পর পর্যায়ক্রমে অচেতন হয়ে পড়েন। পরে তাদেরকে ওই বাসার অন্য লোকজন হাসপাতালে নিয়ে আসে।

চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক মো. বেলাল হোসেন বলেন, ছয়জনের মধ্যে সবাই গুরুতর অসুস্থ। খাবারের মধ্যে বিষক্রিয়া থাকলে এই ধরনের অবস্থার সৃষ্টি হয়। তাদেরকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। কয়েক ঘণ্টা পর্যবেক্ষণের পর তাদের অবস্থা সম্পর্কে বলা যাবে।

(ঢাকাটাইমস/১৯ডিসেম্বর/প্রতিনিধি/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত