তারাবির জন্য প্রস্তুত শতবর্ষী মমিনবাড়ী মসজিদ

শওকত আলী, চাঁদপুর থেকে
 | প্রকাশিত : ২৭ মে ২০১৭, ১৬:২৯

পবিত্র মাহে রমজানের তারাবির নামাজের জন্য সব প্রস্তুতি ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে চাঁদপুর সদর উপজেলার বালিয়া ইউনিয়নের কুমুরুয়া গ্রামের ঐতিহ্যবাহী শত বছরের পুরনো মমিনবাড়ী জামে মসজিদে।

তিন তলা বিশিষ্ট এ মসজিদের ভেতরে এবং বারান্দায় একত্রে নামাজ পড়তে পারেন প্রায় ৯০০ মুসল্লি। তবে প্রতি সপ্তাহে জুমার নামাজে প্রায় ৬০০ মুসল্লি নামাজ আদায় করেন। ২০১৬ সালের রমজান মাসে নিয়মিত ৩০০ মুসল্লি তারাবির নামাজ আদায় করেছেন।

এবছর মসজিদের সংস্কার ওজুখানার আধুনিকায়ন ও নামাজ পড়ার জন্য ব্যবস্থাপনা উন্নত করার কারণে আরও মুসল্লি বাড়তে পারে বলে মসজিদ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

মমিনবাড়ী মসজিদের পার্শ্ববর্তী পূর্ব গুলিশা গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষক আমিনুল হক মজুমদার জানান, তাঁর বয়স এখন ৭৫ বছর। ছোটবেলা থেকেই তিনি এই মসজিদ দেখে আসছেন। তার জন্মের অনেক আগেই এই মসজিদ প্রতিষ্ঠা করেন মরহুম ক্বারী ইব্রাহীম (রহ.)। কুমুরুয়া, হরিণা, গুলিশা গ্রামসহ আশপাশের মানুষ এই মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করেন।

মমিনবাড়ী মাদ্রাসা শিক্ষক সাজেদুর রহমান জানান, তিনি গত সাত বছর এই মসজিদে তারাবিহ নামাজ পড়েন। এই মসজিদের হাফেজদের কোরআন পড়া শ্রুতিমধুর এবং ব্যবস্থাপনা ভালো থাকার কারণে মুসল্লিরা সঠিক সময়ে নামাজ পড়তে আসেন।

মসজিদের খতিব ও ইমাম হাফেজ মাওলানা ক্বারী আশরাফ আলী খান ঢাকাটাইমসকে বলেন, রমজানের প্রস্তুতি হিসেবে ইতোমধ্যে দুইজন হাফেজ নিয়োগ করা হয়েছে। হাফেজ মো. হুজাইফা ও হাফেজ মো. ওমর ফারুক এ বছর তারাবি পড়াবেন। হুজাইফা গত বছর তারাবি পড়িয়েছেন এবং ওমর ফারুক এ বছর নতুন। তারা প্রতি রাকাতে এক থেকে দেড় পৃষ্ঠা করে কোরআন তারাবিতে পড়বেন। মমিনবাড়ী জামে মসজিদ রমজান ছাড়াও সব সময় ৮০০ থেকে ৯০০ মুসল্লি একত্রে নামাজ পড়ার ব্যবস্থা রয়েছে। নামাজের সময় বিদ্যুৎ না থাকলে জেনারেটরের ব্যবস্থা রয়েছে। আল্লাহর ইচ্ছায় এ বছর সুন্দর পরিবেশে তারাবির নামাজ আদায় করতে পারবেন বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

(ঢাকাটাইমস/২৭মে/প্রতিনিধি/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত