পাহাড়িদের বাড়িঘরে আগুনের মামলায় আসামি চারশ

রাঙামাটি প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০৩ জুন ২০১৭, ১৭:৩২ | প্রকাশিত : ০৩ জুন ২০১৭, ১৩:২০

রাঙামাটির লংগদু উপজেলা সদরের চারটি গ্রামে পাহাড়িদের ঘরবাড়ি পুড়িয়ে দেওয়ার ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে। শনিবার সকালে করা মামলাটিতে ১৫ জনের নাম উল্লেখ করে ৪০০ জনকে আসামি করা হয়েছে। এদের মধ্যে মামলার এক থেকে সাত নম্বর আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

লংগদু থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোমিনুল ইসলাম জানান, অগ্নিসংযোগ, হামলা ও পুলিশের ওপর আক্রমণের ঘটনায় একটি মামলা করা হয়েছে। এতে ১৫ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরও চারশ জনকে আসামি করা হয়েছে। এদের মধ্যে সাতজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার দুপুরে খাগড়াছড়ি সদরের চারমাইল এলাকায় রাস্তার পাশের জঙ্গল থেকে লংগদু উপজেলার সদর ইউনিয়ন যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নুরুল ইসলামের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। সেদিন সকালে মোটরসাইকেলে দুজন যাত্রী নিয়ে তিনি লংগদু থেকে খাগড়াছড়ি যাচ্ছিলেন। বাঙালিদের অভিযোগ, তাকে হত্যা করা হয়েছে এবং এ ঘটনার সঙ্গে পাহাড়ি কোনো সন্ত্রাসী গোষ্ঠী জড়িত।

মৃত্যুর ঘটনার পরদিন শুক্রবার উত্তেজিত বাঙালিরা পাহাড়িদের বাড়িঘরে হামলা ও ভাঙচুর করে। এবং পাহাড়িদের অনেক বাড়িঘরে আগুনে দেয়া হয় বলে অভিযোগ করে পাহাড়িরা। ক্ষতিগ্রস্ত পাহাড়িরা এজন্য বাঙালিদের দায়ী করেন।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে যাওয়ায় লংগদু উপজেলায় শুক্রবার দুপুরে লংগদু সদর ও তার আশপাশ এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়। পরে আজ দুপুরে তা প্রত্যাহার করে নেয়া হয়।

ঘটনার পর তিনটিলা গ্রামটি প্রায় জনশূন্য হয়ে পড়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিরা বলছেন, গ্রামটির ৮৬টি ঘরবাড়ি পুড়ে গেছে। তারা বেশ কিছুটা দূরে আশ্রয় নিয়েছেন। কেউ কেউ রাতেই জঙ্গলে আশ্রয় নিয়েছেন।

ঢাকাটাইমস/৩মে/জেডএ/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত